এই পাঁচ ই’ঙ্গিতেই বুঝতে হবে আপনার এখনই বিয়ে করা দরকার

সঙ্গী ছাড়া একাকী জীবন কাটানো ক’ষ্টকর। অনেকেই চান বিয়ে না করেই সারাজীবন কা’টিয়ে দেবেন। যা একদমই ভুল সিদ্ধা’ন্ত। তবে বিয়ের জন্য কিছু উপযুক্ত সময় থাকে যা আপনাকে আগে থেকেই ই’ঙ্গিত দেবে।

বিয়ে নিয়ে কম-বেশি সবারই কিছু না কিছু স্বপ্ন থাকে। তবে বিয়ে নিয়ে স্বপ্ন দেখা যত সহজ, বিয়ে করা কিন্তু অতটা সহজ নয়। নানা রকম দায়িত্ব-কর্তব্য এর স’ঙ্গে জড়িত। তাই হুট করে বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়ার সাহস করাটা বেশ ক’ঠিন। তবে এর জন্য ভ’য় বা শ’ঙ্কায় না থেকে দেখা উচিত যে বিয়ের জন্য আ’সলেই আপনি প্র’স্তুত কিনা। তাই চলুন জে’নে নেয়া যাক কিছু বিষয় যা বুঝতে সাহায্য করবে আপনি বিয়ের জন্য প্র’স্তুত-

মতের মিল ও গ্রহণ করার ক্ষ’মতা
বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়ার আগে নিজেকে প্রশ্ন করুন। ভেবে দেখু’ন, আপনি আপনার সঙ্গীর বিভিন্ন দিকগুলো সহজে গ্রহণ ক’রতে পারবেন কিনা। তার আকাঙ্ক্ষা, দু’র্বলতা, অভ্যাস এবং মনমালিন্য হলে মানিয়ে নেয়ার জন্য আপনি প্র’স্তুত কিনা। আর যদি পছন্দের মানুষ থাকে, তাহলে বিয়ের ব্যাপারে তার মত নিন। দুজনের মতের মিল হলেই বিয়ের ব্যাপারে সিদ্ধা’ন্ত নিন। কারণ সংসারে দুজনকেই মানিয়ে চলতে হবে। কেউ কারো ওপর জো’র করে কিছু চা’পিয়ে দিলে দুজনের স’স্পর্ক ন’ষ্ট হয়।

লক্ষ্য নির্ধারণ
লক্ষ্য ছাড়া পথভ্রষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়ার আগে আপনার লক্ষ্য কী তা ভেবে দেখু’ন? সবার আগে ভাবুন, সঙ্গী হিসেবে আপনি কেমন মানুষ চাইছেন। প্রয়োজনে প্রিয় মানুষটির স’ঙ্গে বসে প’রিকল্পনা করুন। নিজে’র লক্ষ্যের ব্যাপারে আত্মবিশ্বা’সী হতে পারলে বুঝবেন আপনার বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়ার সময় হয়েছে।

পারফেক্ট কেমিস্ট্রি
যে মানুষটিকে আপনি ভালোবাসেন কিংবা পরিবার থেকে আপনার জন্য যাকে পছন্দ করা হয়েছে তার স’ঙ্গে কিছুটা হলেও সময় কাটান। তার স’ঙ্গে কথা বলতে যদি আপনি সহজ ও সাবলীল বোধ করেন, আপনার মনে হয় যে এই মানুষটিকেই আপনি খুঁজছিলেন, তাহলে বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নিতে পারেন।

নি’রাপত্তা
বিয়ের জন্য আর্থিক এবং মা’নসিক নি’রাপত্তা খুব দরকার। নিজেকে গুছিয়ে নেয়ার আগে আবেগের বশে বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নিলে জীবন এলোমেলো হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ঠিক একইভাবে যাকে বিয়ে ক’রতে চাইছেন তার স’ঙ্গে স’স্পর্কটা যদি নি’রাপদ মনে হয় ,তবেই বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়া উচিত। মনে কোনো সন্দে’হ থাকলে কিংবা স’স্পর্ক নড়বড়ে হলে বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়া উচিত নয়।

পুরোনো স’স্পর্কের প্রতি অনুভূতি
বিয়ের আগে মন থেকে পুরোনো সব স’স্পর্কের স্মৃ’তি মুছতে না পারলে দাম্পত্য জীবনে স’মস্যা হতে পারে। তাই বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়ার আগে ভেবে দেখু’ন যে, পুরোনো কোনো স’স্পর্কের প্রতি এখনো আপনার দু’র্বলতা আছে কিনা। যদি না থাকে, তাহলে আপনার বিয়ের সিদ্ধা’ন্ত নেয়ার সময় হয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*