ওবায়দুল কাদেরের সিল-সই জাল করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় ইয়াসিন

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের এপিএস পরিচয় দিয়ে তার সিল ও স্বাক্ষর জা’ল করে বিভিন্ন সরকারি দফতরে চাকরি দেয়ার প্র’লো’ভনে মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হা’তিয়ে নেয়া এক প্র’তার’ককে গ্রে’ফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ। গ্রে’ফতারকৃতের নাম- মো. মোজাম্মেল হক ইয়াসিন (৩৩)।

গ্রে’ফতা’রের সময় তার হে’ফাজত থেকে প্র’তার’ণার কাজে ব্যবহৃত সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নাম সম্বলিত সিল ও বিভিন্ন নিয়োগ সংক্রান্ত কাগজপত্র উ’দ্ধার করা হয়। রবিবার (২৭ ডিসেম্বর) গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. সাইফুর রহমান আজাদ জানান, গত ২৩ ডিসেম্বর কামরাঙ্গীরচর থানার জাউলাহাটি চৌরাস্তা এলাকায় অ’ভিযা’ন চালিয়ে তাকে গ্রে’ফতার করে কোতোয়ালী জো’নাল টিম।

গ্রে’ফতারকৃত মোজাম্মেল ভিজিটিং কার্ড ছাপিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ব্যক্তিগত সহকারী পরিচয় দিত। মন্ত্রীর নামে জাল সিল ব্যবহার করে তার স্বাক্ষর জাল করে এলজিইডি ভবন, মা’দ’কদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়, ফায়ার সার্ভিস, বিভিন্ন ব্যাংকে নিয়োগ, টে’ন্ডা’রবা’জি ও বদলি সং’ক্রা’ন্তে সুপারিশ করতো। এমনভাবে প্রতারণা করে ভু’ক্তভো’গীদের নিকট হতে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিত।

তিনি জানান, ভু’ক্তভো’গী মো. মাঈন উদ্দিন নামে এক ব্যক্তিকে অস্থায়ী কার্য সহকারী পদে চাকরি দেওয়ার জন্য মন্ত্রীর সিল ও স্বাক্ষর জা’ল করে প্রধান প্রকৌশলী, এলজিইডি ভবন, আগারগাঁও, ঢাকা বরাবর একটি আবেদন করে। বিষয়টি এলজিইডি অফিস কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হলে এলজিইডি অফিস কর্তৃপক্ষ এ সংক্রান্তে শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মা’ম’লা রুজু করে। মামালার প্রেক্ষিতে উল্লেখিত স্থানে অ’ভি’যান চালিয়ে তাকে গ্রে’ফ’তার করা হয়।

এই গো’য়ে’ন্দা কর্মকর্তা আরও জানান, ২৪ ডিসেম্বর গ্রে’ফতারকৃতকে রি’মা’ন্ডের আ’বেদন করে বিজ্ঞ আ’দালতে প্রেরণ করলে আদালত দুই দিনের রিমা’ন্ড মঞ্জুর করে। রিমা’ন্ড শেষে আজ (২৭ ডিসেম্বর) রবিবার তাকে বিজ্ঞ আ’দালতে প্রেরণ করা হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*