করোনা পরীক্ষা করতে গিয়ে ১৫ জনের মৃত্যু!

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কি-না পরীক্ষা করাতে আসছেন অসংখ্য মানুষ।এর জেরে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ে সীমান্তে। সেখানেই করোনা পরীক্ষা করাতে গিয়ে প্রাণ হারাতে হলো ১৫ জনকে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম রয়টার্স জানিয়েছে, ক্রিসমাসের ছুটিতে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রবেশে ইচ্ছুকদের করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

ফলে আফ্রিকা-জিম্বাবুয়ে সীমান্ত এলাকায় বেড়ে গেছে মানুষের চাপ। সারি সারি গাড়ি ও ট্রাকের কারণে জ্যাম ছাড়িয়ে গেছে কয়েক কিলোমিটার। এমন পরিস্থিতিতে সীমান্ত এলাকায় অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকেই। পর্যাপ্ত চিকিৎসা ব্যবস্থা না থাকায় সেখানেই প্রাণ হারিয়েছেন ১৫ জন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন আরও বেশ-কয়েকজন। উল্লেখ্য, বর্তমানে বিশ্বে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৮ কোটি।

মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৭ লাখ ৫৬ হাজারেরও বেশি। করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডও-মিটারের তথ্যানুযায়ী, শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮ কোটি ১ লাখ ৯৬ হাজার ৪৭৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৭ লাখ ৫৬ হাজার ৯৭৪ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৫ কোটি ৬৪ লাখ ৬১ হাজার ৯৯ জন।

পড়ুন আরও খবর – ফাঁকা জায়গায় লাল কাপড়ে মোড়ানো কিছু একটা পড়ে ছিল। রাসেল আহমেদ নামে এক ব্যক্তি এগিয়ে যান। পেঁচানো কাপড় খুলে দেখেন অপরিণত এক নবজাতক। রোববার (২৭ ডিসেম্বর) সকালে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার নান্দিয়া সাঙুন গ্রামে নবজাতকের মরদেহটি পাওয়া যায়। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রাসেল গরু চরাতে গিয়ে কাপড় দিয়ে মোড়ানো বস্তুটি দেখে লোকজনকে জানান।

পরে কয়েকজনসহ কাপড় খুলতেই বেরিয়ে আসে অপরিণত নবজাতকের মরদেহ। বিষয়টি শ্রীপুর থানায় জানান তারা। রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই মরদেহের পরিচয় না মেলায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে অপরিণত মরদেহটি কবর দেওয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) দেলোয়ার হোসেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*