দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত যাত্রী আনলে তিন দিনের ফ্লাইট বাতিল

দেশি-বিদেশি কোনো এয়ারলাইন্স করোনা নেগেটিভ সনদ ছাড়া বিদেশ থেকে দ্বিতীয়বার যাত্রী আনলে তিন দিনের ফ্লাইট বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আর প্রথমবার যাত্রী আনলে জরিমানা করা হবে।

সম্প্রতি বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) এমন কঠোর নির্দেশনা দিয়েছে। এরপরও কোনো কোনো এয়ারলাইন্স সনদ ছাড়া এখনও যাত্রী পরিবহন করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সর্বশেষ শুক্রবার রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে করোনা পজেটিভ যাত্রী পাওয়া যায়। এতে ওই এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষকে বিমানবন্দরের ভ্রাম্যমাণ আদালত পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করে।

বিমানবন্দর সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে করোনা পজেটিভ রোগী বহন করলে প্রথমবার এয়ারলাইন্সকে নগদ টাকা জরিমানা করে সতর্ক করা হচ্ছে। এরপরও যদি কোনো এয়ারলাইন্স একই ভুল করে তাহলে পরবর্তী সময়ে ওই এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বাতিল করা হবে। এমন নির্দেশনা দেয়া রয়েছে। এরপরও দেশি-বিদেশি বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে করোনা পজেটিভ যাত্রী আসছেই।

জানতে চাইলে বেবিচকের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান বলেন, করোনা পজেটিভ যাত্রী আনার অভিযোগে শুক্রবার কাতার এয়ারওয়েজকে মাত্র পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পরবর্তী সময়ে একই ধরনের ফল্ট হলে তিন দিনের ফ্লাইট বাতিল করা হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রত্যেক এয়ারলাইন্সকে এমন নির্দেশনা আগেই দেয়া হয়েছিল। এটা দেশের স্বার্থে ও জনগণের স্বার্থে করা হয়েছে। কোন এয়ারলাইন্সের সঙ্গে আমাদের খাতির করার সুযোগ নেই।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*