প্রবাস থেকে শূন্য হাতে দেশে ফিরেছেন ৪৬ হাজার নারী, সবচেয়ে বেশী সৌদি থেকে

ক’রো’না ম’হামা’রিতে দেশে ফিরেছেন প্রায় ৪৬ হাজার প্রবাসী নারী কর্মী। এসব নারী কর্মীর মধ্যে কেউ নি’র্যা’তি’ত হয়ে, কেউ করোনা পরিস্থিতিতে কাজ হারিয়ে ফিরে এসেছেন দেশে। যার ফলে এই নারীরা দেশে ফিরে এসেছেন শূন্য হাতে। আর্থিক ও মান’সিক চা’পে ভে’ঙে পড়া এই নারীরা এখনো জানেন না, তাদের পুনর্বাসন কীভাবে হবে।

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রবাসীকল্যাণ ডেস্কের তথ্য অনুযায়ী, ১ এপ্রিল থেকে ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত শুধু সৌদি আরব থেকেই ফেরত এসেছেন ২০ হাজার ২৩৮ জন নারী। আরব আমিরাত থেকে ফিরেছেন ১০ হাজার ৪৬১ জন। কাতার থেকে ৪ হাজার ৩২৮ জন, লেবাবন থেকে ২ হাজার ৮০৩ জন ও জর্ডান থেকে এক হাজার ৮৭৬ জন ফিরে এসেছেন।

বাংলাদেশ অভিবাসী মহিলা শ্রমিক অ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ নারী শ্রমিক কেন্দ্র গণমাধ্যমকে জানান, প্রবাসে যারা গৃহকর্মীর কাজ করেন তাদের ওপর ক’রো’নাকালে কাজের চা’প ও নি’র্যা’তন অনেক বেড়েছে। অনেকে খাবার পাননি। অনেকে কাজ হা’রিয়েছেন।

নারী শ্রমিক কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক সুমাইয়া ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, বিদেশে যাওয়া নারীদের একটা বড় অংশ তা’লা’ক পেয়েছেন। দেশে ফিরেও তারা এখন আর কোনো কাজ পাচ্ছেন না। এসব নারীকে পুনর্বাসনের জন্য সরকার বিশেষ ঋণ চালু করেছে।

বিদেশ থেকে ফেরত আসা নারীরা ভু’গছেন মান’সিক সমস্যা’তেও। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের অভিবাসন কর্মসূচি থেকে জানা যায়, দুই বছরে মা’নসি’কভাবে অ’সুস্থ হওয়া ৬৩ জন নারীকে পরিবারের কাছে পৌঁছে দিয়েছে সংস্থাটি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*