বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে ব্যাপক উত্তেজনা, ৩০-৩৫ নেতাকর্মী আটক

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দুই বছর পূর্তি উপলক্ষে দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ আখ্যা দিয়ে একাদশ জাতীয় নির্বাচন বাতিল ও পুনর্নির্বাচনের দাবিতে কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারা দেশে বিক্ষোভ সমাবেশ করছে বিএনপি।এরই ধারাবাহিকতায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ৩০-৩৫ জন নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টা থেকেই বিএনপি ও এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা প্রেসক্লাবের সামনে এসে জড়ো হতে থাকে। কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও সকাল থেকেই সতর্ক অবস্থান নেয়।

বেলা ১১টায় কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মসূচি শুরু হয়। কর্মসূচি শুরু হওয়ার পর নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে মিছিল সহকারে বিএনপি ও অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা যখন প্রেসক্লাবের সামনে এসে উপস্থিত হচ্ছিলেন তখন পুলিশের সাথে হালকা উত্তেজনা তৈরি হয়।

এসময় বিএনপির নেতাকর্মীরা কিছুটা ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়ে এবং জাতীয় প্রেসক্লাবের আশপাশের সড়কে তারা অবস্থান নেয়। বিএনপির কর্মসূচির কারণে প্রেসক্লাব ঘিরে আশপাশের সড়কগুলোতে সকাল থেকেই তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

বিক্ষোভ কর্মসূচিতে বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব উন-নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে যোগ দিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও কৃষকদলের সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন প্রমুখ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*