শামীমের টার্গেট অসুখী বয়স্ক নারী

বিভিন্ন সময়ে দেশে নানান ধরনের মানুষের সন্ধান মেলে কখনো বা দেখা যায় নিজেদের স্বার্থসিদ্ধি করার জন্য অন্যের উপর জোর খাটাচ্ছে আবার কখনো দেখা যায় কৌশলে এবং প্রতারণার মাধ্যমে মানুষকে বোকা বানিয়ে তাদের থেকে স্বার্থসিদ্ধি আদায় করে নিচ্ছে কিছু প্রতারক চক্র। নিজেদের স্বার্থের জন্য তারা সবকিছু করতে উদ্যত হয় এবং বিভিন্ন সময় মানুষকে মিথ্যে প্রলোভন দিয়ে এবং তাদের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে তারা বিভিন্ন নেতিবাচক কর্মকাণ্ড করে থাকে

তার পেশা হচ্ছে ফেসবুকে বিভিন্ন ট্রাভেল গ্রুপে যোগদান করে সেখান থেকে সচ্ছল, অসুখী ও কিছুটা বয়স্ক মহিলাকে টার্গেট করে পরিচিত হওয়া। তারপর বিভিন্নভাবে প্রলুব্ধ করে দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে ’অ’/’ন্ত’/’র’/ঙ্গ সম্পর্ক তৈরি করে বাংলাদেশের বিভিন্ন ট্যুরিস্ট লোকেশনে ঘুরতে যাওয়া। সেখানে বিভিন্ন মিথ্যা প্রলোভন দিয়ে ’অ’/’ন্ত’/’র’/’ঙ্গ মুহূর্তের বিভিন্ন ছবি, ভিডিও ধারণ করা।

ঘোরাঘুরি শেষে যে যার কর্মস্থলে বা বাসায় যাওয়ার পর শুরু হয় ভয়ভীতি প্রদর্শন। ধারণকৃত বিভিন্ন ভিডিও, ছবি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়াসহ নিকট আত্মীয়ের কাছে ফাঁস করে দেওয়ার কথা বলে ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা-পয়সা থেকে শুরু করে স্বর্ণ-গয়না হাতিয়ে নেয়। এরপর ভুক্তভোগীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এবং ডিভাইস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে তার পরিচিতদের কাছ থেকে টাকা পয়সা চাওয়া থেকে শুরু করে নারীদের চাপে রাখাসহ বিভিন্ন হুমকি দেয়।

এমনই এক ব্যক্তিকে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নাম কামরুল হাসান ওরফে শামীম।র‌্যাব-৪-এর এএসপি মো. জিয়াউর রহমান চৌধুরীবলেন, ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২২ ডিসেম্বর সকালে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ এলাকা থেকে শামীমকে গ্রেফতার করা হয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে লোভনীয় প্রস্তাব দিয়ে মিথ্যা প্রলোভন দিয়ে সেখানে মা’নুষকে’ বোকা বানানো হয় এবং তাদের থেকে অর্থ-সম্পদ হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনা ও ভাটার সময় এবার এমনই একজন ‘ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ওই ব্যক্তিকে নোয়া’খালীর বেগম’গঞ্জ এলাকা’ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে গ্রেফ’তার’কৃত ওই ব্যক্তির নাম কামরুল হাসান শামিম

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*