সেই ভিক্ষুক দম্পতিকে সহায়তা

অর্থের অভাবে মানবিক জীবনযাপন করা পটুয়াখালীর সেই ভিক্ষুক দম্পতির পাশে দাঁড়াল উপজেলা প্রশাসন। তাদের কাছে জামা-কাপড়সহ খাদ্যসামগ্রী ও শীতবস্ত্র পৌঁছে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) পরনে কাপড় না থাকায় ‘স্ত্রীর ওড়না পরেন স্বামী’ এধরণের একটি সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।

এরপর দুপুরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লতিফা জান্নাতি ওই দম্পতির ঘরে খাবার-কাপড়সহ বিভিন্ন সহায়তা নিয়ে তাদের বাড়িতে পৌঁছান। এ সময় সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহিন আলম, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো. হেমায়েত উদ্দিন, পটুয়াখালী ইউথ ফোরামের সভাপতি মো. জহিরুল ইসলাম,

পটুয়াখালী ইউথ ফোরামের নির্বাহী পরিচালক মো. হাসিবুর রহমান, সদস্য মীর মহিব্বুল্লাহ্, সদস্য রিফাত প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ইউএনও লতিফা জান্নাতি বলেন, ওই দম্পতির বিষয়টি নজরে আসার সঙ্গে সঙ্গে তাদের সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। তাদের জীবনমান উন্নয়নে ভাতার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তাদের ঘরের ব্যবস্থাও করে দেয়া হবে।

এর আগে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেনের পক্ষ থেকে শাড়ি-লুঙ্গি, খাদ্য সামগ্রী ও শহরের ফোকাস ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পক্ষ থেকে ওই দম্পতিকে খাবার ও কাপড় দেন করেন মেহেদী হাসান শিবলী। এছাড়া দু’টি কম্বল পৌঁছে দেন পটুয়াখালী ইয়ুথ ফোরামের নির্বাহী পরিচালক মো. হাসিবুর রহমান।

rc=”https://i.imgur.com/Hjjwsnc.jpg” alt=””>

উল্লেখ্য, ৯৫ বছরের বৃদ্ধ সুলতান এলাকায় সুলতান ডাক্তার নামে পরিচিত। পটুয়াখালী পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের ১ম লেন বোহালগাছিয়া এলাকায় সত্তরোর্ধ্ব স্ত্রী সকিনা বেগমকে নিয়ে থাকেন তিনি। এই দম্পতির দুই ছেলে মোস্তফা ও মোশাররফ। তারা শহরে রিকশা চালান। যে যার মতো থাকেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*