সৌদি প্রবাসীদের টাকা নিয়ে পালালো প্রতারক আবুল হোসেন

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কাজ হারিয়ে না খেয়েই দিন কাটাতে হতো সৌদি প্রবাসী আবুল হোসেন ফরাজীর। তার দুঃখ কষ্টের কথা শুনে আশ্রয় দিয়েছিল আরও এক প্রবাসী। কিন্তু সেই আশ্রয় দেওয়াটাই যেন ভুল ছিলো প্রবাসী শাহিন শরীফের।

প্রতারক আবুল হোসেনের বাড়ি ঝালকাঠির রাজাপুর। তার বাবার নাম আব্দুল মজিদ ফরাজি। রিয়াদের হারা এলাকায় আবুল হোসেন ও আরও ৬-৭ জন প্রবাসী এক মেসে থাকতেন।

টানা ছয় মাস মেসে থাকা ও খাওয়ার পর চম্পট দিয়েছেন প্রতারক আবুল হোসেন। থাকা খাওয়ার টাকা তো দেয়ইনি, সাথে সৌদি আরবের ১২০০ রিয়াল নিয়ে পালিয়েছে। বাড়িতে অভাব অনাটনের কথা বলে প্রবাসী শাহীন শরীফ, নিজাম হাওলাদার, আনোয়ার হোসেন ও আফজাল শরীফের কাছ থেকে নিয়েছেন বেশ কিছু সৌদি রিয়াল।

প্রতারনার শিকার শাহীন শরীফ বলেন, ওর খারাপ সময়ে বিশ্বাস করে আশ্রয় দিয়েছিলাম। বাড়িতে সমস্যার কথা বলে অনেক টাকা ধার নিয়েছে। বেতন পেলেই টাকা ফেরত দিয়ে দেওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু আমার টাকা দেওয়া তো দূরের কথা সাথে আরও তিনজনের টাকা নিয়ে পালিয়েছে। আমি তার সাথে মোবাইলে ০০৯৬৬৫৭১১৫২৫৪৬ নাম্বারে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে ফোন রিসিভ করেনা। ইমো, হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ দিলে সিন করে রেখে দেয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*