আগামী বাজেটে করোনাসহ যে সব বিষয় অগ্রাধিকার পাবে

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসে’ম্বর) বাজেট ব্যবস্থাপনা সভা এবং আর্থিক ও মুদ্রা বিনিময় হার সংক্রান্ত কো-অর্ডিনেশন কাউন্সিলের প্রথম সভা অনু’ষ্ঠিত হয়েছে বলে জানা গেছে। এতে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি সিঙ্গাপুর থেকে ভার্চু’য়ালি সভায় যোগ দেন।

মহামারি করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত সারা বিশ্ব। ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে দেওয়া হয় দফায় দফায় লকডা’উন। আর এই লকডাউনে সব কিছু হয়ে যায় অচল। এ কারণে বিশ্বের প্রতিটি দেশের অর্থনী’তিতে ‘বিরাট ধস নামে। সেখানে বাদ যায়নি বাংলাদেশও। এরইমধ্যে আবার শুরু হয়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। করোনা’র সব ধাক্কা কাটিয়ে বাংলাদেশ ‘অর্থনীতি আবার শক্তভাবে দাঁড়াতে পারবে কি না- তা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে চলছে নানা বিশ্লেষণ।

ওই সভায় আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে কোন খাতকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে সে বিষয়ে আলোচনা হয়। বাজেটে ৯টি বিষয়কে অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা সভায় উল্লেখ করা হয়। সেখানে আগামী অর্থবছরের জিডিপির প্রবৃদ্ধিসহ বিভিন্ন লক্ষ্যমাত্রা নিয়েও আলোচনা হয়।আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে যে ৯টি বিষয়ে অগ্রাধিকার পাবে সেগুলো হলো-

১। বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় সরকারের অগ্রাধিকার খাতগুলোতে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ নিশ্চিত কর।২। কোভিড-১৯ মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজগুলোর সফল বাস্তবায়ন।৩। কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণে স্বাস্থ্য খাতে অতিরিক্ত বরাদ্দ, প্রণোদনা এবং ক্ষতিপূরণ।৪। অধিক খাদ্য উৎপাদনের লক্ষ্যে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ সেচ ও বীজ প্রণোদনা, কৃষি পুনর্বাসন, সারে ভর্তুকি প্রদান অব্যাহত রাখা।৫। ব্যাপক কর্মসৃজন ও পল্লী উন্নয়ন।

৬। সামাজিক নিরাপত্তা কার্যক্রমের আওতা সম্প্রসারণ।৭। গৃহহীন দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য গৃহনির্মাণ (মুজিববর্ষের প্রধান কার্যক্রম)।৮। নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে বিনামূল্যে বা স্বল্পমূল্যে খাদ্য বিতরণ ব্যবস্থা চালু রাখা।৯। এছাড়া শিক্ষা ও দক্ষতা উন্নয়নসহ সার্বিক মানবসম্পদ উন্নয়ন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*