আবারো বাড়ছে সেতুর টোল

অনলাইন ডেস্ক:– নাগরিক পর্যায়ে অসন্তুষ্টির পরও দেশের বিভিন্ন সেতুর টোল বাড়ানোর নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। রক্ষণাবেক্ষণ খরচ বৃদ্ধি, জীবন মানোন্নয়নের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই টোলহার বাড়ানো হচ্ছে বলে দাবি সেতু বিভাগের। তবে জনগণের বোঝা হয়ে দাঁড়ায় এমন হার নির্ধারণ না করে, বরং টোল পদ্ধতি আধুনিকায়নে নজর দেওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

রাজধানীর চারপাশের সেতুগুলোতে যেখানে টোলমুক্ত সেখানে বুড়িগঙ্গা প্রথম সেতুতে আবারো টোল আদায় করছে সরকার। টোলের হারও বাড়ানো হয়েছে। এ নিয়ে যাতায়াতকারীদের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে অসন্তোষও কম নয়। এতে সরকারের রাজস্ব আয় বেড়েছে। কিন্তু যাতায়াতকারীরা বলছেন, রাজধানীর প্রবেশমুখের ধীরগতিতে টোল আদায়ের ফলে সৃষ্টি হয় যানজট।

পিকআপ ড্রাইভার জানান, আগে টোল ছিল ৩০ টাকা এখন তাকে গুনতে হয় ৭৫ টাকা।

নতুন করে পারাপারের খরচ বাড়ানোর পর বুড়িগঙ্গা প্রথম সেতুর টোল নিয়ে জনমনে ক্ষোভ দীর্ঘদিনের। বিশেষ করে নানা কারণে নদীর দু’পাড় থেকে দিনে একাধিকবার যাদের যাতায়াত করতে হয় যার চাপটা বেশি পড়ে তাদের ওপর। আবার আদায়ের রশিদ দেওয়া নিয়েও আছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ।

একজন মোটরসাইকেল চালক অভিযোগ করেন, টোল দিলেও আদায়ের রশিদ দেওয়া হয় না। আগে মোটরসাইকেল পারাপারে নেয়া হতো ১০ টাকা এখন দিতে হয় ১৫ টাকা।

অভিযোগ অস্বীকার করে আদায়কারী বলেন, রশিদ চাইলেই তাকে দেওয়া হয়। না চাইলে দেওয়া হয় না। আর একজন যাতায়াতকারী জানান, বুড়িগঙ্গার ওই পাড়ে বাসা হওয়ায় প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ বার যেতে হয় তার। প্রতিবারই গুনতে হয় টোল।

এমন পরিস্থিতিতে দেশের সেতুগুলোতে নতুন করে টোলহার বাড়ানোর নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে ২০১৫ সালের টোল নীতিমালার আলোকে বৈঠক করেছে টোল নির্ধারণ কমিটি। অবশ্য এখনই মহাসড়কে টোল বসানো হবে না বলে জানিয়েছেন সেতু সচিব বেলায়েত হোসেন। টোল পদ্ধতির ডিজিটালাইজেশনে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই, যৌক্তিকভাবেই হার নির্ধারণ করা হবে।

যানজট নিরসন ও চাঁদাবাজি বন্ধে স্বয়ংক্রিয় টোল পদ্ধতি চালুর আহ্বান যোগাযোগ বিশেষজ্ঞের। পাশাপাশি বাড়তি টোল যেন সেতু ব্যবহারকারীদের ওপর চাপ না বাড়ায় সেদিকেও খেয়াল রাখার পরামর্শ দিয়েছেন।

দেশেজুড়ে সাড়ে চার হাজারের বেশি সেতু আছে। এর মধ্যে ৮০টির মতো সেতুতে টোল আদায় করা হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*