কলা খেলে ঘু'ম ভাল হয়

কলা অনেক পুষ্টিকর একটি খাবার। আমা'দের দেশে এটি ফল এবং সবজি – দু ভাবেই ব্যবহার করা হয়ে থাকে। কলা দামেও সস্তা তেমনি এর প্রাপ্যতাও বেশ সহজ। আধুনিক গবেষণা বলছে, কিছু খাবার রয়েছে যা খেলে আপনার রাতের ঘু'ম ভালো হবে। তার মধ্যে কলা একটি। কলা খেলে শরীরে মেলাটোনিন ও কর্টিসল হরমোন নিঃসরণ হয়। ফলে রাতে ভালো ঘু'ম হয়।

কলায় রয়েছে দৃঢ় টিস্যু গঠনকারী উপাদান যেমন আমিষ, ভিটামিন এবং খনিজ। এছাড়া কলা ক্যালরির একটি ভাল উৎস। এতে কঠিন খাদ্য উপাদান এবং সেই স'ঙ্গে পানি জাতীয় উপাদানের সমন্বয় যে কোনো তাজা ফলের তুলনায় বেশি। প্রতি ১০০ গ্রাম কলায় রয়েছে পানি ৭০.১%, আমিষ ১.২%, ফ্যাট (চর্বি) ০.৩%, খনিজ লবণ ০.৮%, আঁশ ০.৪%, শর্করা ৭.২%, ক্যালসিয়াম ৮৫ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ৫০ মিলিগ্রাম, আয়রন ০.৬ মিলিগ্রাম, ভিটামিন-বি কমপ্লেক্স ৮ মিলিগ্রাম এবং ভিটামিন-সিও রয়েছে কলায়।

আরো পড়ুন:দুধ চা খেলে যে আট'টি ক্ষ’তি হয়ে থাকে, সবার জেনে রাখা উচিত
আমর'া কমবেশি সবাই চা পান করতে পছন্দ করি। সকালে দুপুরে কিংবা বিকেল ও সন্ধ্যায়। কাজের ফাঁ'কে, অবসরে, আড্ডায় চা না হলে যেন চলেই না। অনেকেই দুধ চা পছন্দ করেন। মুখরোচক দুধ চা স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ভালো? চলুন জেনে নেওয়া যাক।

দুধ চায়ের ক্ষ’তিকর দিক নিয়ে আলোচনা করেছেন পুষ্টিবিদ আয়শা সিদ্দিকা। আপনার কি দুধ চা ছাড়া চলেই না? দিনে কি ৫-৬ বার দুধ চা চাই-ই চাই? তাহলে এখনই সচেতন 'হতে হবে আপনাকে। আমা'দের অনেকেরই দুধ চা কিংবা চা একটা অ্যাডিকশনে পরিণত হয়েছে। মাত্রাতিরি’ক্ত চা পান করা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষ’তিকর, আর তার সাথে যদি দুধ ও চিনি কিংবা কনডেন্স মিল্ক যোগ করা হয় ক্ষ’তির পরিমাণ আরও বেড়ে যায়। সারাদিনে একজন সুস্থ ব্যক্তির ২-৪ কাপের বেশি চা খাওয়া উচিত না।

চা পানীয় হিসেবে খুবই স্বাস্থ্যকর। কেননা চাতে ক্যাফেইনের পাশাপাশি ক্যাটেচিন নামক এন্টি এক্সিডেন্ট থাকে৷ কিন্তু চায়ের সাথে যদি দুধ মিশানো হয় তবে দুধের কেজিন প্রোটিন আর ক্যাটেচিন রি-অ্যাকশন করে এন্টিঅক্সিডেন্টের গু'ণ ন’ষ্ট করে দেয়, পাশাপাশি চা-কে এ'সিডিক করে ফেলে। যার কারণে ইনফ্লামেশন হয়। আর চিনি যোগ করলে সেই ক্ষ’তি আরও বেড়ে যায়। দুধ চায়ের ক্ষ’তিকর দিকগু'লো-

১. পেট ফাঁ'পা বা ব্লোটিং হয় ২. পুষ্টির ঘাটতি দেখা দিতে পারে ৩. স্ট্রেস ও দুশ্চিন্তা বাড়ায় ৪. অ্যাডিকশন বাড়ায় ৫. অনিদ্রা দেখা দেয় ৬. ব্রন ওঠে ৭. কোষ্ঠকাঠিন্য ৮. র’ক্তচাপ উঠা-নামা করে চায়ের উপকারিতা ঠিকভাবে পেতে রং চা মধু ও আ'দা দিয়ে খাওয়া ভালো। এছাড়া গ্রিন টি, লেমন টি, হারবাল টি ইত্যাদি স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*