গোল্ডেন মনিরের বিরু'দ্ধে চার্জশিট

মা'দক ও অ'স্ত্রের মা'মলায় রাজধানীর মেরুল বাড্ডার গাড়ি এবং স্বর্ণ ব্যবসায়ী মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরের বিরু'দ্ধে আলাদা দুটি চার্জশিট দিয়েছে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

আজ (২৬ জানুয়ারি) ঢাকা মহানগর হাকিম আ'দালতে মা'মলার ত'দন্ত কর্মক'র্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আব্দুল মালেক এ চার্জশিট দাখিল করেন।

গত বছরের ২০ নভেম্বর দিবাগত রাতে মেরুল বাড্ডার ডিআইটি প্রজেক্ট এলাকায় অ'ভিযান চালিয়ে মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরকে গ্রে'ফতার করে র‍্যাব'। তার কাছ থেকে উ'দ্ধার করা হয় একটি বিদেশি পি'স্তল, কয়েক রাউন্ড গু'লি, বিদেশি ম'দ ও প্রায় ৯ লাখ টাকার বৈদেশিক মুদ্রা। তার বাসা থেকে আট' কেজি স্বর্ণ ও নগদ এক কোটি ৯ লাখ টাকা জব্দ করা হয়।

র‍্যাব' জানায়, নব্বইয়ের দশকে রাজধানীর গাউছিয়ায় একটি কাপড়ের দোকানের কর্মচারী ছিলেন মনির। সেই চাকরি ছেড়ে তিনি ক্রোকারিজের ব্যবসা শুরু করেন। এরপর লাগেজ ব্যবসা অর্থাৎ ট্যাক্স ফাঁ'কি দিয়ে বিভিন্ন দেশ থেকে মালামাল আনতেন মনির। একপর্যায়ে তিনি স্বর্ণ চোরাকারবারিতে জড়িয়ে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণ অবৈ'ধপথে বিদেশ থেকে বাংলাদেশে আনেন। সে কারণেই তার নাম হয়ে যায় ‘গোল্ডেন মনির’। স্বর্ণ চোরাকারবারে জড়ানোর কারণে ২০০৭ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে তার বিরু'দ্ধে একটি মা'মলা হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*