ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে নাম ঘোষণা নিয়ে চেয়ার ভাঙচুর

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মঞ্চে নাম ঘোষণা নিয়ে মাদারীপুরের কালকিনিতে সভামঞ্চের সামনের চেয়ার ভাঙচুর ও ব্যাপক ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার সার্কিট হাউজ মাঠে এই ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা যায়, ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকালে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বদিউজ্জামান বাকামিন খানের নেতৃত্বে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি কালকিনি উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সার্কিট হাউজ মাঠে এসে পৌঁছে। পরে সেখানে আলোচনা সভায় মঞ্চে আসার জন্যে একে একে নেতাদের নাম ঘোষণা করা হয়। এসময় সিনিয়র নেতাদের বাদ দিয়ে জুনিয়র নেতাদের নাম আগে ডাকার অভিযোগে কালকিনি পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিবুল ইসলাম খলিলের সমর্থকরা মঞ্চের সামনের চেয়ার ব্যাপক ভাঙচুর শুরু করেন। এক পর্যায়ে তা সর্বত্র ছড়িয়ে পড়লে উপস্থিতি ঘোলাটে হয়ে যায়। এসময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে।

পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনায় পরে সংক্ষিপ্তভাবে আলোচনা সভা হয়।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি নাসির উদ্দিন মৃধা জানান, ‘সামান্য আগে পরে নাম ঘোষণাকে নিয়ে চেয়ার ছোটাছুটি, তেমন কোন বড় ঘটনা না। আমি নিজে উপস্থিত থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি। কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।’

তবে কালকিনি ছাত্রলীগের সভাপতি বদিউজ্জামান বাকামিন খান বিষয়টি নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি বলে বাদী করেন। অন্যদিকে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিবুল ইসলাম খলিলের সাথে যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*