ছোট বোনকে বিয়ে দেওয়ায় কারনে বড় বোনের আত্মহত্যা

এবারে পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে ছোট বোনকে বিয়ে দেওয়ায় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে অভিমান করে বড় বোন আত্মহত্যা করেছে।

শনিবার (০২ জানুয়ারি) এ ব্যাপারে ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. হুমায়ুন কবির জানান, জান্নাতি আক্তারের মরদেহ শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পিরোজপুর মর্গে পাঠানো হয়।

এ বিষয় তদন্ত চলছে, ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া সাপেক্ষে মৃত্যুর কারণ উদঘাটন করা যাবে।
জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার চণ্ডিপুর ইউনিয়নের খোলপটুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে শুক্রবার রাতেই খোলপটুয়া গ্রামের ভ্যানচালক জাহাঙ্গীর হাওলাদারের বাড়ি থেকে জান্নাতি আক্তারের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল হোসেন জানান, জাহাঙ্গীর হাওলাদারের দুই মেয়ে জান্নাতি আক্তার চণ্ডিপুর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী এবং ছোট বোন লামিয়া সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। কিছুদিন আগে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে জান্নাতিকে দেখতে এসে পরে তার ছোট বোন লামিয়াকে পছন্দ করে পাত্রপক্ষ।

এরপর ছোট বোন লামিয়ার বিয়ে হলে বড় বোন জান্নাতির সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের অভিমানের ঘটনা ঘটে। এ কারণে অভিমান করে বাবা-মাকে চিরকুট লিখে শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘরের আঁড়ার সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*