ঝাড়ফুঁক নিতে গিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের শ্রীরামপুর আবু উলাইয়া খানকা শরীফের তত্ত্বাবধায়কের বিরুদ্ধে ঝাড়ফুঁক আনতে যাওয়া এক প্রবাসীর স্ত্রীকে অন্তঃসত্ত্বা করার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এই ঘটনায় তত্ত্বাবধায়ক মাওলানা সিরাজুল ইসলামকে (৪৮) গ্রেফতারের পর শুক্রবার দুপুরে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সিরাজুল ইসলাম হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বড়গাঁ গ্রামের মৃত আশিকুল ইসলামের ছেলে।

ঘ- টনার সত্যতা নিশ্চিত করে নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রশিদ জানান, খানকায় সিরাজুল ইসলাম লোকজনকে ঝাড়ফুঁক দিতেন। এখানে বিভিন্ন এলাকা থেকে নারী পুরুষ সমবেত হয়। পাশের গ্রাম ভোলাচংয়ের এক প্রবাসীর স্ত্রীও এই খানকায় ঝাড়ফুঁকের জন্য আসা যাওয়া করতেন। বৃহস্পতিবার স্থানীয়রা কানাঘুষা করছিলেন, খানকার তত্ত্বাবধায়ক ওই প্রবাসীর স্ত্রীকে অন্তঃসত্ত্বা করেছে।

ওসি আরও বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে নবীনগর থানার পুলিশ গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে সিরাজুলকে সন্ধ্যায় আটক করেন। পরে রাতে ওই নারী বাদী হয়ে সিরাজুলকে আসামি করে নবীনগর থানায় একটি মামলা করেন। এ মামলার পর তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন=ঢাকা আইনজীবী সমিতির আয়োজনে হয়ে গেল ইংরেজি বছরের শেষ দিনকে বিদায় ও নতুন বর্ষ ২০২১ বরণের অনুষ্ঠান। ঢাকা বারের সাংস্কৃতিক সম্পাদকের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠান বেশ প্রাণবন্ত ছিল।

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) বিকেলে ‘২০২১ সাল’ লেখা কেক কেটে নেচে-গেয়ে আনন্দ ও হৈ-হুল্লোড় করে এ অনুষ্ঠান উদযাপন করা হয়। নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়ে সকলেই আনন্দ করেছেন।

আইনজীবীরা বলেন, সন্ধ্যার সূর্যাস্তের মধ্য দিয়ে আরেকটি খ্রিস্টীয় বছর ২০২০ বিদায় নিল। বছরটি পৃথিবীকে দিয়েছে মহামারির তাণ্ডব, মৃত্যুর মিছিল, কর্মহারা জীবন ও অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ। এ পরিস্থিতির মধ্যেই নতুন বছর নিয়ে মানুষ আশায় বুক বাঁধবে। করোনামুক্ত ঝলমলে একটি বিশ্ব গড়ার প্রত্যয় নিয়ে পথচলা শুরু করবে।

একজন বলেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বলেছিলেন, ‘ফোটে যে ফুল আঁধার রাতে/ঝরে ধুলায় ভোর বেলাতে/আমায় তারা ডাকে সাথে- আয় রে আয়।/সজল করুণ নয়ন তোলো, দাও বিদায়…।’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*