দুর্বল নেতৃত্ব বিএনপিকে ভোটের রাজনীতি থেকে পিছিয়ে দিচ্ছে: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নেতৃত্বের দুর্বলতা আর অস্বচ্ছ রাজনীতিই বিএনপিকে ভোটের রাজনীতি থেকে দিন দিন পিছিয়ে দিচ্ছে।

তিনি বলেন, তারা জনগণের কাছে ভোট না চেয়ে সরকারের অন্ধ সমালোচনা ও মিথ্যাচারকেই ব্রত হিসেবে নিয়েছেন, যা প্রকারা'ন্তরে তাদের রাজনৈতিক অস্তিত্বকে দুর্বল করে তুলছে।

আজ রোববার (১৭ জানুয়ারি) সকালে ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ মন্তব্য করেন। পৌর নির্বাচনের পর সিরাজগঞ্জে যে সং'ঘা'ত হয়েছে, তা দুঃখজনক বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

পৌরসভা নির্বাচনে যারা আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিরু'দ্ধে নির্বাচন করে জয়লাভ করেছে, তাদের ভবি'ষ্যতে দলের কোনো গু'রুত্বপূর্ণ পদে আর বিবেচনায় আনা হবে না বলে হুশিয়ার করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, পরবর্তী ধাপের নির্বাচনে যারা দলের সি'দ্ধান্ত মানবে না এবং দলের শৃঙ্খলাবিরোধী কাজ করেব, তাদের বিরু'দ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জয়-পরাজয় যাইহোক পরবর্তী নির্বাচনে তারা আর মনোনয়ন পাবে না, এটাই আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনার সি'দ্ধান্ত বলেও স্পষ্ট জানিয়ে দেন সেতুমন্ত্রী।

শনিবার দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে জয় লাভ করা দলের মনোনীত প্রার্থীদের অ'ভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, এ বিজয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও মানবিক নেতৃত্বে এগিয়ে যাওয়ার উন্নয়ন, অগ্রযাত্রা ও সমৃ''দ্ধির বিজয়।

সেতুমন্ত্রী এ বিজয়কে গণতন্ত্রের অ'ভিযাত্রাকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নেওয়ার বিজয় বলেও মত প্রকাশ করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা দেশের নির্বাচন ব্যবস্থাকে প্রশ্নবি'দ্ধ করতে চায়, নির্বাচন নিয়ে কথায় কথায় 'হতাশা প্রকাশ করে, গতকালের নির্বাচনে জনগণ তাদের ‘উদ্দেশ্যমূলক’ অ’পপ্রচারের জবাব দিয়েছে।

‘ভোটকেন্দ্র সরকারি দলের দখলে ছিল’ বিএনপির এমন অ'ভিযোগ প্রস'ঙ্গে তিনি পাল্টা প্রশ্ন করে বলেন, তাহলে তাদের ৪ জন প্রার্থী কীভাবে বিজয়ী হলেন?

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, বিএনপি নেতারা মাঠে না গিয়ে ঘরে বসে শীত উদযাপন করেছেন। কর্মীরা ভোট দিতে চাইলেও মাঝদুপুরে ভোট বর্জনের সংস্কৃতি তাদের তাড়া করে।

৬০টি পৌরসভার মধ্যে ২৯টিতে ইভিএম এবং ৩১টিতে ব্যালটে ভোট হয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ইভিএমে জনগণ স্বাচ্ছন্দ্যে ভোট দিয়েছে। তাদের মধ্যে কোনো জড়তা ছিল না।

ইভিএমে ভোট দেওয়ার বি'ষয়ে জনগণের আগ্রহ এখন অনেক বেড়েছে বলেও মনে করেন ওবায়দুল কাদের।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*