পেটের দায়ে নয়, বিকৃত কামনা পূরণেই ভিক্ষাবৃত্তিতে বুলু

রাজশাহীতে ভিক্ষুকের বেশে দিনে-দুপুরে নারী, কি’শোরী ও শি’শুদের মে’য়েদের শরীরে হাত করে বেড়ান এক বৃ'দ্ধ। রাজশাহী শহরের জনবহুল সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট ও আরডিএ মা’র্কেট এলাকায় তার বিচরণ। এরইমধ্যে এক ব্যক্তির মুঠোফোনে ধারণ করা একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাই’রাল হয়েছে। এর পরপরই পুলিশ তাকে শনাক্ত করে গ্রে'’ফতার করেছে।

ওই ভিডিও ক্লিপে দেখা গেছে, ভিক্ষাবৃত্তির আড়ালে মে’য়েদের কৌশলে মে’য়েদের শরীরে হাত করাই তার বি’কৃত নে’শা। ভিক্ষাবৃত্তির ছলে নগরীর ব্যস্ততম এলাকা আরডিএ মা’র্কেটসহ বিভিন্ন জায়গায় এই বৃ'দ্ধ এসব অ’নৈতিক কাজ করে বেড়াচ্ছেন বলে অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ঝড় উঠেছে।

গ্রে'’ফতার ওই বৃ'দ্ধের নাম বুলু (৬২)। নগরীর পাঁচানী মাঠ এলাকায় তার দোতলা একটি বাসা আছে। তিনি নারীদের শরীরে হাত করার উদ্দেশ্যে ভিক্ষুক সাজেন। সম্প্রতি বৃ'দ্ধের ভিক্ষাবৃত্তির ছলে মে’য়েদের শরীরে হাত কৌশলগু'লো সাইফুল ইস’লাম দুলাল নামের এক যুবকের দৃষ্টিগোচর হলে গো’পনে প্রায় ৬ মিনিটের একটি ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে পোস্ট দেন তিনি। গত ২৪ জানুয়ারি সন্ধ্যার দিকে দেওয়া ওই পোস্ট মুহূর্তের মধ্যে ভাই’রাল হয়ে যায়।

এসময় ওই বৃ'দ্ধকে দ্রুত গ্রে'’ফতার করে আইনের আওতায় এনে শা’স্তির দাবি জানিয়ে অনেকেই কমেন্ট করতে থাকেন। ফেসবুকে ভাই’রাল হওয়া এই ভিডিও ক্লিপটির বি'ষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহীর বোয়ালিয়া মডেল থা’নার ভা’রপ্রা'প্ত কর্মক’র্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন বলেন, ভিডিও দেখে ওই বৃ'দ্ধকে শনাক্ত ও গ্রে'’ফতার করা হয়েছে। যারা তার যৌ'’ন হয়’রানির শিকার হয়েছেন তাদের মধ্যে থেকে একজন মা’মলা করেছেন। সেই মা’মলায় তাকে গ্রে'’ফতার দেখানো হয়েছে।

ওসি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া গেছে তিন স্বচ্ছল। তবে বৃ'দ্ধ। হাঁটতে চলতে অন্যকে ধরেন। মানসিক প্রতিবন্ধিতার কোনো তথ্য মেলেনি। স্ত্রী’’সহ দুই সন্তান রয়েছে। শাহমখদুম কলেজের পেছনে একটি বাসায় ভাড়া থাকেন পরিবার নিয়ে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*