ফাইনালে বোনের প্রতিপক্ষ আপন বোন; মাঠে বসে কাঁদলেন মা

মুজিব বর্ষ বিজয় দিবস আমন্ত্রণমূলক টেবিল টেনিস টুর্নামেন্টে গতকাল (৩০ ডিসেম্বর) মঙ্গলবার মেয়েদের দলগত ইভেন্টের ফাইনালে বোনের প্রতিপক্ষ ছিল বোন। এক বোন সোনামের ক্লাব আবাহনীর বিপক্ষে মুখোমুখি হয়েছিল আরেক বোন নওরিনের ক্লাব বাংলাদেশ পুলিশ।

একক এই প্রতিযোগিতায় তুমুল লড়াই চলছিল সোনাম সুলতানা ও নওরিন সুলতানার মধ্যে। মাঠে বসে উপভোগ করেছিলেন মা তানজিরা বেগম। দুই সন্তানকে সাপোর্ট দিয়েছেন তিনি। তবে ম্যাচটিতে সোনামের কাছে হেরে গেছেন নওরিন। যদিও দলগত ইভেন্টে ৩-১ গেমে আবাহনীকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নওরিনের দল পুলিশ।

প্রিয় দুই সন্তানের খেলা দেখতে এসে কাঁদলেন মা তানজিরা। কারণ গত বছর জুলাইয়ে স্বামী মোশাররফ হোসেনকে হারান তিনি। এরপর ডিসেম্বরে হারাতে হয় একমাত্র ছেলেকে। তাই উডেনফ্লোর জিমনেসিয়ামে তানজিরা বেগম ছেলের স্মৃতি খুঁজে ফিরছিলেন বারবার। চোখে ছিল জল।

ছোট বোনের বিপক্ষে খেলতে গিয়ে রোমাঞ্চিত সোনাম বলেন, “ও ভালো খেলছিল বলে খুশিতে কান্না পাচ্ছিল। আমার দল হেরেছে বলে একটু খারাপ লেগেছে। তবে ওরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, ওদের আনন্দটা দেখতেও মন্দ লাগেনি।” বড় বোনের বিপক্ষে খেলতে নামা নওরিন বলেন, “খেলতে নামলে কে বোন, কে ভাই, এগুলো মাথায় রাখি না। সে নিজের সেরাটা দিয়ে খেলেছে, আমিও তাই। যে ভালো খেলবে, টেবিলে সে–ই জিতবে। বোন বলে এতটুকু ছাড় দিই না।”

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*