বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনে ঢাবিকে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আল্টিমেটাম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) প্রশাসনকে ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্য স্থাপনের জন্য সময় বেঁধে দিল বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। ১৭ মার্চের মধ্যে ভাস্কর্য স্থাপন করা না হলে দায়িত্ব নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চই ভাস্কর্য স্থাপন করবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা।

রবিবার (১০ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে বারোটায় ঢাবির কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগাররের সামনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, বারবার দাবি করা সত্ত্বেও স্বাধীনতার ৫০ বছরেও মহান মুক্তিযুদ্ধের সূতিকাগার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কোনো ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়নি, যা অত্যন্ত দুঃখজনক। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নেতৃত্বে আমরা স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ পেয়েছি, পেয়েছি লাল-সবুজের পতাকা। মুক্তিযুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবদান অনস্বীকার্য। বঙ্গবন্ধু এ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের যৌক্তিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়ার কারণে তৎকালীন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাঁর ছাত্রত্ব বাতিল করেছিল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আবার তাঁর ছাত্রত্ব ফিরিয়ে দিয়ে প্রমাণ করেছে যে, বঙ্গবন্ধু কখনােই অন্যায়ের সাথে আপােষ করেননি। যাঁর জন্য আমরা বাংলাদেশ নামক একটি রাষ্ট্র পেয়েছি, সেই রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে বারবার দাবি করা সত্ত্বেও আজও পর্যন্ত তাঁর কোন ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়নি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে তার শতবর্ষে আমরা বঙ্গবন্ধুর একটি ভাষ্কর্য উপহার দিতে চেয়েছিলাম। আমরা আশা করেছিলাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমাদের এ ব্যাপারে সহযোগিতা করবেন। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অনুমতি না দেওয়ায় আমরা ভাষ্কর্য স্থাপন আপাদত স্থগিত রেখেছি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছেন যে, সকল প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করে তারা নিজ উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধুর নান্দনিক ভাস্কর্য স্থাপন করবেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, আমরা আর কালক্ষেপণ সহ্য করবো না। অবিলম্বে আমাদের দাবি পূরণ করতে হবে। আগামী ১৭ মার্চের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধুর নান্দনিক ভাস্কর্য স্থাপন করতে হবে। অন্যথায় ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনে আনুষ্ঠানিকভাবে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে “অবিনশ্বর বঙ্গবন্ধু” নামে ভাষ্কর্য স্থাপন করবে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

প্রসঙ্গত, পূর্বঘোষণা অনুযায়ী শনিবার বিকেল তিনটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে “অবিনশ্বর বঙ্গবন্ধু” নামে ভাষ্কর্য স্থাপন কর্মসূচি শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। কিন্তু কর্তৃপক্ষের অনুমোদন না নেয়া এবং যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ না করায় ভাস্কর্য স্থাপনের কাজ বন্ধ করে দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*