বিয়ে করলেই পাবে ৬৮ লাখ টাকা ঋণ! অতঃপর

জন্মগ্রহণ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য বিশ্বে অনেক দেশ নানা রকমের পদ্ধতি অবলম্বন করছে। কিন্তু এই দেশটি জন্মগ্রহণ নিয়ন্ত্রণ করার পরিবর্তে সন্তান জন্ম দেওয়ার জন্য উৎসাহিত করছে। এ লক্ষ্যে প্রত্যেক দম্পতিকে একটি মোটা অঙ্কের আর্থিক সাহায্য করছে দেশটি। শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সন্তান জন্ম দেওয়ার জন্য উৎসাহিত করছে দক্ষিণ কোরিয়া।

ক্রমহ্রাসমান জনসংখ্যার বিরুদ্ধে লড়াই করার প্রয়াসে দম্পতিদের সন্তান নেওয়ার সিদ্ধান্তে উৎসাহিত করতে আর্থিক সাহায্যের নীতি আনল দক্ষিণ কোরিয়ার এক শহর। সন্তান জন্ম দিলে মোটা অঙ্কের আর্থিক সুবিধা দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। কারণ সেই শহরটিতে জনসংখ্যা দিন দিন কমে যাচ্ছে।

দেশটির স্থানীয় এক সংবাদ সংস্থার বরার দিয়ে জি নিউজ জানিয়েছে, দক্ষিণ কোরিয়া শহরের দক্ষিণ গিয়ংসাং প্রদেশের রাজধানী চাংওয়ান দম্পতিদের কমপক্ষে ৩টি সন্তান থাকলে ভারতীয় মুদ্রায় তাদের ৭ কোটি ৩৩ লাখ ৩৩ হাজার ২৫ টাকা দিয়ে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে।

অন্যদিকে নতুন নীতি অনুসারে, শহরে বসবাসরত সদ্য বিবাহিত দম্পতিদের প্রায় ৬৮ লাখ পর্যন্ত ঋণ দেবে। নতুন নীতি আরও বলা হয়েছে যদি কোনো দম্পতি একটি সন্তানের জন্ম দেয় তবে সম্পূর্ণ সুদ মওকুফ করা হবে। যদি দুটি সন্তানের জন্ম হয় তাহলে আসলের পরিমাণ কমে যাবে ৩০ শতাংশ। যদি ৩ সন্তানের জন্ম হয় তাহলে আসল ও সুদসহ পুরো টাকাই আর দিতে হবে না।

দক্ষিণ কোরিয়ার জন্মসংখ্যা মৃত্যুর হারের চেয়ে কম থাকার কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ২০২০ সালে দক্ষিণ কোরিয়ায় ২ লাখ ৭৫ হাজার ৮১৫ জন জন্ম নেয় এবং ৩ লাখ ৭ হাজার ৭৬৪ জন মারা যায়। চ্যাংওয়নে কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছেন যে, জনসংখ্যা ১ মিলিয়নের নিচে নেমে যেতে পারে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*