ভারত ২ ডলারে পেলে আমরা কেন ৫ ডলারে নিবো?

ভারত যে টিকা (করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন) পাচ্ছে দুই ডলারে, আমরা সেই টিকা পাচ্ছি সোয়া পাঁচ ডলারে। বাড়তি এই টাকার অংশ কে পাচ্ছে সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

আজ সোমবার (৪ জানুয়ারি) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের মেহেরুন নেছা স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শাস্তির দাবিতেঅনুষ্ঠিত মানববন্ধনে ডা. জাফরুল্লাহ এ প্রশ্ন তোলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ভারতের সেরামকে টিকার জন্য প্রথম ধাপে যে ৬শ কোটি টাকা দিচ্ছে বাংলাদেশ, তার চেয়ে কম টাকায় যদি পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ দশ বিজ্ঞানীকে এক কোটি টাকা মাসিক বেতনে দেশে আনা হতো, তাতেও দেশের ১২০ কোটি টাকা খরচ হতো। তাহলে এখানে অনেক বিজ্ঞানী তৈরি হতো।

দেশে এক বছরের মধ্যে টিকা তৈরি করা যেত, এতা নিশ্চিত করে বলা যায়। দেশের প্রতিষ্ঠান গ্লোব বায়োটেককে যদি ৫০ কোটি টাকা সাবসিডি দেওয়া হতো, তবে তারাও দেশি বিজ্ঞানীদের নিয়ে কাজ করতে পারতো। তাহলে বাংলাদেশ নিজস্ব অর্থায়নে করোনার টিকা আবিষ্কার করতে পারতো।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক সদস্য মিয়া আনোয়ার, ছাত্রনেত্রী মেলিনা সুলতানা, দেশ বাঁচাও-মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের রকিবুল ইসলাম প্রমুখ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*