৫০০ রিঙ্গিত জরিমানা দিলে নতুন সুবিধা পাবে মালয়েশিয়ার অবৈধ অভিবাসীরা

মালয়েশিয়ার সরকার আবারও অননুমোদিত নেপালি শ্রমিকসহ অবৈধ অভিবাসীদের লক্ষ্য করে একটি সাধারণ ক্ষমা প্রকল্প চালু করেছে এবং তাদের দেশে ফিরে যাওয়ার সুযোগ দিয়েছে। সর্বশেষ স্কিমের আওতায় মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে বসবাসরত নেপালিরা কোনও গুরুতর আইনী পদক্ষেপের মুখোমুখি না হয়ে স্বেচ্ছায় দেশে ফিরে আসতে পারেন।

মালয়েশিয়ার নেপালি দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব প্রতীক কার্কি ফোনে ফোনে জানিয়েছেন, “এই প্রকল্পের আওতায় নেপালি কর্মীরা দেশে ফিরতে আবেদন করতে পারবেন।” “আগের সাধারণ ক্ষমা প্রকল্পের এবং নতুনটির মধ্যে পার্থক্য হ’ল অতীতে আরএম ৭০০ এর তুলনায় শ্রমিকদের কেবল ৫০০ মালয়েশিয়ার রিংগিত (প্রায় ২০,২৯৫) দিতে হবে।”

মালয়েশিয়ার সরকার দেশে অবৈধ অভিবাসীদের পরিচালনার জন্য তার অবৈধ অভিবাসী পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা চালু করে। পরিকল্পনার অধীনে দুটি স্বতন্ত্র প্রোগ্রাম রয়েছে — শ্রম পুনরুদ্ধার প্রোগ্রাম এবং রিটার্ন রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম। রিটার্ন রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম অবৈধ অভিবাসীদের স্বেচ্ছায় দেশে ফিরে আসতে দেয়।

বিপরীতে, শ্রম রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামটির লক্ষ্য অবৈধ অভিবাসীদের নিবন্ধিত হওয়ার এবং যোগ্য মালয়েশিয়ার নিয়োগকর্তাদের সাথে কর্মসংস্থান সন্ধানের অনুমতি দেওয়া। কুয়ালালামপুরে নেপালি দূতাবাস দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশটিতে অনাবন্ধিত নেপালি কর্মীদের এই প্রকল্পটি কাজে লাগাতে এবং কোনও আইনি বাধা ছাড়াই দেশে ফিরে আসতে বলছে।

রিটার্ন রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামের মাধ্যমে যারা ফিরে যেতে ইচ্ছুক তাদের মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগের সাথে অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে। নির্ধারিত দিনে শ্রমিককে প্রয়োজনীয় সমস্ত নথিপত্র নিয়ে উপস্থিত থাকতে হবে এবং দেশ ছাড়ার জন্য কর্তৃপক্ষের একটি চেকআউট মেমো পাওয়ার জন্য আরএম ৫০০ এর জরিমানা দিতে হবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*