গ্রেফতারি আদেশের পর পালিয়েছে কণ্ঠশিল্পী মিলা, খুঁজছে পুলিশ

অ্যা’সি’ড নি’ক্ষে”পের মা’ম’লা’য় কণ্ঠশিল্পী মিলা ও তার সহযোগী কিম জন পিটার হালদারের বি’রু”দ্ধে গ্রে’ফতা’রির আ’দেশ দিয়েছেন আ’দাল’ত।মামলায় হাজিরা না দেওয়ায় ঢাকার ‘অ্যা’সি’ড দ’মন ট্রাইবুনালের জে’লা জজ এই গ্রে’ফ’তা’রির আদেশ দেন। গ্রে’ফতা’রি আদেশের বিষয়ে আজ শুক্রবার সকালে কথা হয় পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী ওয়াজেদ আলীর সঙ্গে।

তিনি বলেন, মিলা ও তার সহযোগী কিমকে গ্রে’ফতা’রের জন্য ত’ল্লা’শি চলছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতেও মিলার মিরপুরের বাসায় ত’ল্লা’শি চালাই, কিন্তু এখনও তিনি ধ’রাছোঁ’য়ার বাইরে। আশা করি, শিগগিরই তাদের গ্রে’ফ’তার করে আ’দালতে সমর্প’ণ করতে পারব। জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২ জুন প্রাক্তন স্বামীর ওপর অ্যা”সি’ড নি’ক্ষে”পের মা’ম’লায় সিআইডির তদ’ন্তে অ’ভিযু”ক্ত হন সংগীত শিল্পী মিলা ও তার সহযো’গী কিম।

এরপর ২০২০ সালের ৩০ ডিসেম্বর সিআইডি আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। পরবর্তীতে এ বছরের ২৮ জানুয়ারি ঢাকার অ্যাসিড দমন ট্রাইব্যুনাল ওই চার্জশিট আমলে নিয়ে উভয় আসামির বি’রু’দ্ধে গ্রে’ফতা’রি প’রোয়া’না ও প’লাত’ক থাকায় ক্রো’কি প’রোয়া’না জা’রি করেন। গত ৯ ফেব্রুয়ারি আদালতের জারিকৃত গ্রে’ফতা’রি পরওয়ানা পল্লবী থানায় পৌঁ’ছায়।

এরপর থেকেই পল্লবী থানা পুলিশ অ’ভিযু’ক্ত মিলা ও তার সহযো’গী কিমকে খুঁজছে। তাদের আবাসস্থল ও সম্ভাব্য অবস্থানে কয়েক দফা ত’ল্লা’শি চালিয়েও তাদেরকে গ্রে’ফতার করা যায়নি। পরিবারের দাবি, তারা কোথায় আছে এ সম্প’র্কে তাদের ধারণা নেই। উল্লেখ্য, মিলার সহযোগী কিম ২০১৯ সালের জুলাই মাসে ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের একটি বাসা থেকে গ্রে’ফতা’র হয়ে কা’রা’গারে যান। পরবর্তীতে জা’মিন নিয়ে আর আ’দাল’তে হাজিরা দেননি। অপরদিকে মিলা এই মা’ম”লার ১নং আসা’মি। তিনি এখন পর্যন্ত কখনওই আ’দাল’তের মুখোমুখি হননি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*