তত্ত্বাবধায়ক সরকার চেয়ে রাজপথে নামা'র আহ্বান নেতাকর্মীদের

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে একদফা আন্দোলনে যেতে বিএনপির কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলটির তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। সমাবেশে বক্তারা বলেন, নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি আ'দায় করতে হবে। এজন্য বিএনপিকে একদফার আন্দোলন নিয়ে রাজপথে নামতে হবে।

বৃহস্পতিবার বরিশাল জিলা স্কুলমাঠে বরিশাল মহানগর বিএনপি আয়োজিত এক বিক্ষো'ভ সমাবেশে তারা এই আহ্বান জানান।

দেশব্যাপী নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে গত সিটি কর্পোরেশন ভোটে দলের মনোনীত মেয়রপ্রার্থীদের নেতৃত্বে বরিশাল মহানগর বিএনপির এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশকে কেন্দ্র করে বরিশাল মহানগরের প্রতিটি মোড়ে মোড়ে কঠোর নিরাপ'ত্তা বলয় গড়ে তোলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তারা সমাবেশে দিকে যাওয়া প্রতিটি গাড়িও তল্লা'শি করে। সমাবেশের শুরুতে দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। পরে বিকেল ৩টায় পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মধ্যেদিয়ে বিক্ষো'ভ সমাবেশ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়।

সমাবেশে তরুণ ছাত্রদের উদ্দেশ্য করে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, স্লোগান দেয়ার জন্য এখানে আসবেন না। স্লোগান দেয়ার জন্য রাজপথ। স্লোগান দিয়ে আমা'দের মিটিং নষ্ট করবেন না। আর যদি প্রতিরোধ করতে হয় তাহলে রাজপথে গিয়ে স'ন্ত্রাসী বাহিনীকে প্রতিরোধ করুন। আগু'ন জ্বা'লাতে হলে শেখ হাসিনার গদিতে আগু'ন জ্বা'লান। আমা'দের মঞ্চে আগু'ন জ্বা'লাবেন না। মঞ্চে আগু'ন জ্বা'লানোর কোনো প্রয়োজন নাই।

মুক্তিযু'দ্ধের প্রেক্ষপট তুলে ধরে তিনি বলেন, ভারতীয় বাহিনী না আসলেও আমর'া এই দেশকে স্বাধীন করতে পারতাম। প্রতিবেশী রাষ্ট্র যখন দেখেছে বিজয় নিশ্চিত, মুক্তিবাহিনী বিজয়ের দারপ্রান্তে নিয়ে গেছে- তখন তারা কৃতিত্ব নেয়ার জন্য শেষ দিকে এসে যোগদান করেছে। তাদেরকে ছাড়াও আমর'া এই দেশকে স্বাধীন করতে পারতাম।

সমা‌বে‌শে ঢাকা সি‌টি দ‌ক্ষিণ কর‌পো‌রেশন নির্বাচ‌নে বিএন‌পির ম‌নোনীত প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হো‌সেন ব‌লেন, ২০০৮ সা‌লে তত্ত্বাবধায়ক সরকা‌রের হাত ধ‌রে ক্ষমতায় এসে‌ছে আওয়ামী লীগ। জনগ‌ণের ভো‌টে আসার সু‌যোগ নেই বলেই বিচার বিভাগ‌কে প্রভা‌বিত ক‌রে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বা‌তিল ক‌রে‌ছে আওয়ামী লীগ। আমর'া পঞ্চদশ সং‌শোধনী বা‌তি‌লের দা‌বি জানাই এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকা‌রের অধীনে নির্বাচন চাই। আজ বরিশাল থেকেই আমর'া এই আন্দোলন শুরু করলাম।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের বিএনপির মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল বলেন, কোনো নির্বাচ‌নে ভোটাররা ভোট দি‌তে পার‌ছে না। বর্তমান আওয়ামী সরকার ব‌লে তারা দু‌র্নীতির স'ঙ্গে আপস ক‌রে না কিন্তু তারা দু‌র্নীতিতে চ্যা‌ম্পিয়ন। আন্দোলনের জন্য আমর'া এখানে একত্রিত হয়েছি। আর জনগণের দাবিতে আমর'া ঐক্যব'দ্ধ থাকবো। আর আমর'া আমা'দের দাবি আ'দায় করেই ছাড়বো।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ডা. শাহাদাত হোসেন ব‌লেন, সি‌টি নির্বাচনগু'‌লো‌তে ভোট ডাকা‌তির মাধ্যমে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কা‌য়েম করার স্বপ্ন দেখ‌ছে সরকার। নির্দলীয় নির‌পেক্ষ‌ সরকা‌রের অধী‌নে নির্বাচন চাই।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ব‌লেন, বিচার‌বিভাগ আর প্রধানমন্ত্রীর দ'প্ত র আলাদা কিনা সেটা জান‌তে চাই। আমর'া নির্বাচন ক‌মিশনের পদত্যাগ চাই এবং নির্বাচন ব্যবস্থায় আমূল প‌রিবর্তন চাই।

খুলনা সি‌টি কর‌পো‌রেশ‌নের নজরুল আসলাম মঞ্জু ব‌লেন, ছয় সিটি কর‌পো‌রেশ‌নের প্রার্থী‌দের নি‌য়ে তা‌রেক রহমা‌নের নি‌র্দে‌শে এক‌টি সুষ্ঠু নির্বাচ‌নের দা‌বি‌তে সমা‌বেশ শুরু ক‌রে‌ছি আমর'া। শেখ হা‌সিনার অধী‌নে আর কোনো নির্বাচ‌নে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

কেন্দ্রীয় বিএন‌পির ব‌রিশাল বিভাগীয় সাংগঠ‌নিক সম্পাদক বিল‌কিস জাহান শি‌রিন ব‌লেন, সমাবেশস্থ‌লে আস‌তে আজ প‌থে প‌থে বাধা দেওয়া হচ্ছে। নেতাকর্মী‌দের মা'রধর করা হ‌চ্ছে। ভোলার নেতাকর্মী‌দের আস‌তে দেওয়া হয়‌নি। সমা‌বেশস্থল ঘি‌রে রে‌খে‌ছে পু‌লিশ। তারপরও নেতাকর্মী‌দের দ‌মি‌য়ে রাখা যায়‌নি।

সভাপতির বক্তব্যে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি মুজিবর রহমান সরোয়ার বলেন, পুলিশ আমা'দের সমাবেশের অনুমতি দিয়েছে। অনুমতি দিয়েই গতকাল রাত থেকে আমা'দের নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে অ'ভিযান চালিয়েছে। তাই গণতন্ত্র না থাকলে কোনো কিছুই হয় না। আর দেশে গণতন্ত্র নেই বলেই শেখ হাসিনা দুর্নীতিমুক্ত করতে পারছেন না।

তিনি বলেন, নি‌শি ভো‌টের আগের দিন রা‌তে পু‌লিশি ভয় দে‌খি‌য়ে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার ক‌রে ভোট ক‌রে‌ছে সরকার। ছয় সি‌টি নির্বাচ‌নে ৩১ জন প্রার্ধী‌কে আ'হত ক‌রে‌ছে। আজ সমা‌বে‌শের অনুম‌তি দি‌য়েও বি‌ভিন্ন জে'লা-উপ‌জে'লায় বিএন‌পির নেতাদের আস‌তে দেওয়া হয়‌নি। এক‌দি‌কে তারা মিটিং কর‌তে অনুম‌তি দি‌চ্ছে অন্যদি‌কে পু‌লিশ দি‌য়ে ভয় দেখা‌চ্ছে। নির‌পেক্ষ সরকা‌রের অধী‌নে নির্বাচন হ‌তে হ‌বে। জনগ‌ণের অধিকার ফি‌রি‌য়ে দি‌তে আন্দোলন সংগ্রা‌মের মাধ্যমে ভো‌টের সুষ্ঠু প‌রি‌বেশ ফি‌রি‌য়ে আন‌তে‌ হ‌বে।

বিক্ষো'ভ সমাবেশে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবুল হোসেন খান বলেন, নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি আ'দায় করতে হবে। এজন্য বিএনপিকে এক দফার আন্দোলন নিয়ে রাজপথে নামতে হবে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সমাবেশের স্থান বরিশাল জিলা স্কুলে প্রবেশের পথ দুটি। এই দুই স্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কঠোর নিরাপ'ত্তা গড়ে তোলেন। স্কুলমাঠে প্রবেশের সময় সবাইকে তল্লা'শিও করে তারা। রাখেন কঠোর নজরদারিতে।

এদিকে দুপুর ১টা থেকে বরিশাল মহানগর বিএনপি ও এর অ'ঙ্গ-সহযোগী সংগঠনসহ ঢাকা এবং আশপাশের জে'লা থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মীরা সমাবেশে যোগ দেন। তারা হাতে দলীয় পতাকা, মাথায় ব্যাজ এবং ব্যানার নিয়ে সমাবেশে যোগ দেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*