নারী সংবাদিককে হয়রানি: হোয়াইট হাউসের উপ-প্রেস সচিব বরখাস্ত

নারী সাংবাদিককে হু’মকি ও হয়রানির অ'ভিযোগে হোয়াইট হাউসের উপ-প্রেস সচিব টি জে ডাকলোকে বরখাস্ত করা হয়েছে। প্রশাসন বলছে- জানুয়ারিতে তিনি এক নারী সাংবাদিককে হু’মকি দেন। ওই অ'ভিযোগের ত'দন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের পর তাকে বরখাস্ত করা হয়।

হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব জেন সাকি জানিয়েছেন, অ্যালেক্সি ম্যাককেমন্ড নামে এক নারী সাংবাদিকের স'ঙ্গে ডাকলোর সম্পর্ক নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশের চেষ্টা করেছিলেন ওই নারী সাংবাদিক। বি'ষয়টি জানতে পেরে ডাকলো প্রতিবেদককে ডেকে নিয়ে হু’মকি দিয়েছিলেন। বি'ষয়টি নিয়ে পূর্ণা'ঙ্গ প্রতিবেদন পাওয়ার পর তাকে এক স'প্ত াহের জন্য বরখাস্ত করা হয়। খবর এনবিসি নিউজ।

এদিকে জেন সাকি শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) পলমেরি নামে ভুক্তভোগী নারী প্রতিবেদককে ফোন করেন। এসময় তিনি তাকে বলেন, বি'ষয়টি আমি খুবই গু'রুত্বসহকারে নিয়েছি। তিনি (ডাকলো) বি'ষয়টি নিয়ে অনুত'প্ত এবং তার ব্যবহারের বি'ষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছে। পরবর্তীতে তিনি কাজে ফিরলেও তাকে আর পলিটিকোর সংবাদকর্মীদের স'ঙ্গে কোনো কাজে অ্যাসাইন করা হবে না।

তবে এ বি'ষয়ে ডাকলোর কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ডাকলোর বরাত দিয়ে সাকি জানিয়েছেন, ডাকলো বি'ষয়টি বুঝেছেন। তিনি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনের মানদ'ণ্ড অনুযায়ী কাজ করেন নি। শাস্তি শেষে কাজে ফিরে আগামীতে তিনি সতর্ক থাকবেন।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার নির্বাচনী প্রচারণা ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনা করে বলেছিলেন, তিনি হোয়াইট হাউসে স্বচ্ছতা ও সম্মান ফিরিয়ে আনবেন। কীভাবে গণমাধ্যম কর্মীদের স'ঙ্গে ব্যবহার করতে হয়, তাও দেখিয়ে দেবেন।

হোয়াইট হাউসের কর্মক'র্তাদের যোগদান অনুষ্ঠানে বক্তৃতার একপর্যায়ে বাইডেন বলেছিলেন, ‘যদি শুনি আপনি সহকর্মীর স'ঙ্গে অসম্মানজনক আচরণ করেছেন, আমি আপনাকে গু'লি করব। কোনো যদি বা কিন্তু শুনব না।’

এনবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডাকলো এনবিসি নিউজের যোগাযোগ বিভাগের সাবেক কর্মী। গত ২০ জানুয়ারিতে পলিটিকোর প্রতিবেদক উপ-প্রেস সচিব ডাকলো এবং এনবিসি ও এমএসএনবিসি’র কন্ট্রিবিউটর ম্যাককেমন্ডের বি'ষয় নিয়ে জানতে হোয়াইট হাউসে গিয়েছিলেন। পরদিন ২১ জানুয়ারি ডাকলো ওই নারী সাংবাদিককে ডেকে অসম্মানজনক কথাবার্তা বলেন এবং তাকে শেষ করে দেয়ার হু’মকি দেন।

পরদিন পলিটিকো বি'ষয়টি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেখানে বলা হয়, মধ্যম সারির একজন প্রেস সচিব কীভাবে গণমাধ্যম কর্মীদের স'ঙ্গে এমন আচরণ করতে পারেন এবং বি'ষয়টি কোন মানদ'ণ্ডে পড়ে তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। পরে ৮ ফেব্রুয়ারি তারা বি'ষয়টি নিয়ে হোয়াইট হাউসে অ'ভিযোগ করে। পরে ডাকলো এবং ম্যাককেমন্ড সম্পর্কের বি'ষয় নিয়ে তারা সংবাদও প্রকাশ করেছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*