পাঁচ ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন জিভের কালো দাগ

জিভ দিয়ে আমর'া কেবল স্বাদ গ্রহণ করি তা কিন্তু নয়। জিভ দেখে রোগও নির্ণয় করা যায়। তাইতো জিভকে স্বাস্থ্যের সূচকও বলা হয়। চিকিৎসকরা জিভের রং দেখেই শারীরিক সুস্থতার ই'ঙ্গিত পান। তাইতো আমা'দের সবার জিভের যত্ন নেয়া জরুরি।

ভারতের জীবনধা'রা ও স্বাস্থ্যবি'ষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরিষ্কার না করলে জিভে খাবার জমে ব্যাকটেরিয়া তৈরি হয়। আর ব্যাকটেরিয়ার কারণে স্বাস্থ্য খারাপ 'হতে পার। মৃ'ত কোষ, ব্যাকটেরিয়া, খাবার ভালোভাবে পরিষ্কার না হওয়া ইত্যাদি কারণে জিভে কালো দাগ দেখা দেয়। যা পরিষ্কার করা জরুরি।

চলুন জেনে নেয়া যাক জিভের কালো দাগ দূর করার পাঁচ ঘরোয়া উপায়-
নরম টুথব্রাশ-দিনে দুবার নরম টুথব্রাশ দিয়ে হালকাভাবে জিভে ঘষুন। এটি করলে জিভে থাকা ব্যাকটেরিয়া ও মৃ'ত ত্বকের কোষ দূর হবে। প্রতিবার খাওয়ার পর জিভ ও দাঁত ব্রাশ করা প্রয়োজন।


আনারস-আনারসে ব্রোমেলিন থাকে, যা কালো দাগ দূর করে এবং জিভকে মৃ'ত ত্বকের কোষ থেকে মুক্তি দেয়। প্রতিদিন আনারস খেলে জিভের কালো দাগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

জিভের কালো দাগ দূর করার উপায়

অ্যালোভেরা জেল-অ্যালোভেরা কোলাজেন কাঠামোর উন্নতি করে দাগ দ্রুত নিরাময় করতে সহায়তা করে। জিভের কালো দাগে অ্যালোভেরা জেল লাগালে দাগ ধীরে ধীরে চলে যাব'ে। এছাড়া অ্যালোভেরা জুসও খেতে পারেন।

দারুচিনি ও লব'ঙ্গ-দারুচিনি ও লব'ঙ্গ জিভের কালো দাগ দূর করতে কার্যকর। দুই টুকরো’ দারুচিনি ও চারটি লব'ঙ্গ নিন। এক গ্লাস পানিতে ভালো করে ফুটিয়ে ঠাণ্ডা করুন। তারপর সেই পানি দিয়ে কুলকুচি করুন। দিনে দুবার করলে জিভের কালো দাগ দূর হবে।

নিম-নিম ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের বিরু'দ্ধে লড়াই করে। এটি প্রাকৃতিকভাবে দাগ দূর করতে সহায়ক। কয়েকটি নিমপাতা এক কাপ পানিতে ভালো করে ফুটিয়ে সেই পানি দিয়ে মুখ ধুলে জিভের দাগ চলে যাব'ে। দিনে দুবার কুলকুচি করুন। ভালো ফল মিলবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*