বান্ধবী সন্তানের জন্ম দিতেই তাঁর মায়ের স'ঙ্গে পালিয়ে গেল যুবক

দু’দিন আগেই জন্ম দিয়েছিলেন সন্তানের। কিন্তু সদ্যোজাতকে নিয়ে বাড়ি আসার আগেই তরুণীর মায়ের স'ঙ্গে পালিয়ে গেলেন বয়ফ্রেন্ড। শুধু তাই নয়,

অন্য একটি জায়গায় গিয়ে দিব্যি সংসারও পেতেছেন তাঁরা। শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে ব্রিটেনের (United Kingdom) গ্লুসেস্টারশায়ারে (Gloucestershire)।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা গিয়েছে, ২৯ বছর বয়সি ওই যুবকের নাম রায়ান শেলটন। অনেকদিন ধরেই জেস অলড্রিজ নামে এক ২৪ বছরের যুবতীর স'ঙ্গে সম্পর্ক ছিল তাঁর।

এরপর দু’জনে একস'ঙ্গে জেসের বাড়িতে থাকতেও শুরু করেন। তখনই রায়ানের স'ঙ্গে জেসের মা জর্জিনা অলড্রিজের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠতে থাকে। মাকে নিজের বয়ফ্রেন্ডের স'ঙ্গে একবার অনভিপ্রেত অবস্থায় দেখেও ফেলেছিলেন জেসে। কিন্তু মা তাঁকে বলেছিলেন, “এমনটা 'হতেই পারে।”

পরবর্তীতে সন্তান প্রসবের আগে হাসপাতালে ভরতি হন জেসে। সেখানেই ফুটফুটে এক সন্তানের জন্মও দেন। এরপর তাঁকে দেখতেও যান রায়ান। কিন্তু জেসে ঘুণাক্ষরেও পরবর্তী ঘটনার আভাস পাননি। কারণ সন্তানকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পরই দেখেন তাঁর বয়ফ্রেন্ড এবং মা একস'ঙ্গে পালিয়ে গিয়েছে।যা দেখার পর কার্যত ভেঙেই পড়েন।

এমনকী বি'ষয়টি মানতে পারেননি তাঁর বাবাও। এক সাক্ষাৎকারে জেসের বোন এমা আ'ক্ষেপের সুরে বলেন, “মা আমা'দের সবার স'ঙ্গে বিশ্বা'সঘা'তকতা করেছে। বাবা কিছুতেই বি'ষয়টি মেনে নিতে পারছে না। ভেঙে পড়েছে। গোটা পরিবারকে ভেঙে দিয়েছে মায়ের এই সি'দ্ধান্ত। আমি নিজেও 'হতাশ।

কীভাবে এই কাজ করতে পারল মা, সেটাই বুঝতে পারছি না।” এই ঘটনায় 'হতবাক ওই পরিবারের স'ঙ্গে জড়িত অনেকেই। এমনকী কেউ কেউ আবার এই ঘটনার জন্য রায়ানকেই দায়ী করেছেন। যদিও রায়ান কিংবা জর্জিনা কেউই এতে ভুল কিছু দেখছেন না।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*