মিয়ানমারে জরুরি অবস্থা জারি, টেলিফোন ও ইন্টারনেট বন্ধ

মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের প্রধান অং সান সু চি এবং দেশটির রাষ্ট্রপতি উইন মিনতকে আটকের পর দেশটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে সেনাবাহিনী। সেই সঙ্গে এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করেছে। এরই মধ্যে দেশটিতে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে টেলিফোন ও ইন্টারনেট সেবা।

এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়া পোস্টে মিয়ানমার রেডিও এবং টেলিভিশন জানিয়েছে, চলমান যান্ত্রিক ত্রুটির আমরা জানাতে চাই, এমআরটিভি এবং মিয়ানমার রেডিওর সম্প্রচার সম্ভব হচ্ছে না।

গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতে মোতায়েন করা হয়েছে সেনা সদস্যদের। দেশটিতে সেনাবাহিনীর সাথে সরকারের চলমান দ্বন্দ্ব ও সেনা অভুত্থানের শংকার মধ্যেই এ আটকের ঘটনা ঘটলো। এমন পরিস্থিতিতে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন পরিষেবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। শুধুমাত্র সেনাবাহিনী পরিচালিত মায়াবতি চ্যানেলের সম্প্রচার চালু আছে। আর নির্দিষ্ট এলাকা বাদে বন্ধ রয়েছে মোবাইল ফোন পরিষেবাও।

গেলো নভেম্বরে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে জয়লাভ করে এনএলডি। তবে সেনাবাহিনী শুরু থেকেই ভোট কারচুপির অভিযোগ করে আসছে। আজ নবনির্বাচিত সরকারের প্রথম সংসদে বৈঠক বসার কথা থাকলেও সেনাবহিনীর পক্ষ থেকে বৈঠক বাতিলের আহ্বান করা হয়েছিল।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*