মুশফিকের এমন আচরন নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন নাসুম

চলতি ব'ঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপের এলিমিনেটর ম্যাচে ১৫০ রান করেও বরিশালের বিপক্ষে ৯ রানে জিতেছে বেক্সিমকো ঢাকা। কিন্তু দল জিতলেও আলোচনার-সমালোচনার শীর্ষে ঢাকার অধিনায়ক মুশফিক। একই ম্যাচে দুইবার একই (সতীর্থ) ক্রিকেটারের দিকে মুশফিকের তেড়ে যাওয়ার ঘটনা এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হট টক। অনেকেই মুশফিকের সমালোচনা করলেও এমন পরিস্থিতির স্বীকার হওয়া সেই ক্রিকেটার নাসুম আহমেদই অবশ্য এই বি'ষয়টিকে বলছেন ‘পার্ট অব দ্য ম্যাচ’।

১৫১ রান তাড়া করতে থাকা বরিশালকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন আফিফ হোসেন। ম্যাচে রোমাঞ্চ, উত্তেজনার আভাস দেখা যাচ্ছিল। ১৩তম ওভারে বল করতে আসা নাসুম আফিফের হাতে খান এক ছক্কা। পরের বলে মিড উইকে'টে ঠেলে সি'ঙ্গেল নিতে গেলে রান আট'কাতে দৌড় দেন বোলার নাসুম ও কিপার মুশফিক দুজনেই। একস'ঙ্গে দুজন জড়ো হওয়ায় ব্যাটসম্যানদের রান আউটের সুযোগ তৈরি করা যায়নি। মুশফিক তখন বল ধরে নাসুমের দিকেই রেগেমেগে থ্রো করতে উদ্যত হন।

পরের ঘটনা ১৭তম ওভারে। তখন খেলায় অনেকটা নিয়ন্ত্রণ বেক্সিমকো ঢাকার। শফিকুলের বলে ফিফটি করা আফিফের ম্যাচ যায় উইকে'টের পেছনে সেই ক্যাচ হাতে জমান মুশফিক। শর্ট ফাইন লেগে থাকা নাসুমও চলে আসেন ক্যাচ নিতে। দুজনের ধাক্কা প্রায় লেগেই যাচ্ছিল। এবারও আবেগ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় তার। বল হাতে থাকা অবস্থায় নাসুমকে প্রায় ঘু'ষ ি মা'রতে উদ্যত 'হতে দেখা যায় তাকে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই মুশফিকুর রহিমের এই আচরণের সমালোচনা করছেন।তবে মুশফিকুর রহিমের সতীর্থ নাসুম আহমেদ এনিয়ে খুব বেশি খোলাসা করেননি।

বিবিসি বাংলাকে এ ব্যাপারে মুঠোফোনে তিনি বলেন, “ম্যাচে কিছুই হয়নি, আমর'া খেলেছি জিতেছি, এর বাইরে যেটা হয়েছে সেটা ম্যাচের মধ্যে রাগের মাথায় 'হতেই পারে।”

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*