সীমা'ন্ত থেকে ধরে নিয়ে যাওয়ার ২১ ঘণ্টা পর সেই পুলিশ সদস্যকে ফেরত দিল বিএস'এফ

পঞ্চগড়: পঞ্চগড়ের মমিনপাড়া সীমা'ন্ত এলাকা থেকে ধরে নিয়ে যাওয়ার ২১ ঘণ্টা পর পুলিশ সদস্য ওমর' ফারুককে ফেরত দিয়েছে ভারতীয় সীমা'ন্তরক্ষী বাহিনী (বিএস'এফ)।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় উপজে'লা সদরের ৭৫৩ নম্বর মেইন পিলারের কাছে বিজিবি ও বিএস'এফের ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে পতাকা বৈঠক শেষে তাকে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পতাকা বৈঠকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) পক্ষে নীলফামা'রী ৫৬ বিজিবি ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মামুন এবং বিএস'এফের পক্ষে ২১ বিএস'এফ ব্যটালিয়নের কমান্ডেন্ট জি এস টমা'র নেতৃত্ব দেন। পরে বিজিবি ওই পুলিশ সদস্যকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এসময় পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমা'র রায়, বিজিবির ঘাগড়া সীমা'ন্ত ফাঁ'ড়ির কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার নুরুল আমিন, সদর থানা পুলিশের ত'দন্ত ওসি জামাল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে মমিনপাড়া সীমা'ন্তের ৭৫৩ নম্বর মেইন পিলার এলাকা থেকে ভারতীয় নাগরিকরা ওই পুলিশ সদস্যকে ধরে মা'রধর করেন এবং ভারতের চানাকিয়া বিএস'এফ ক্যাম্পের বিএস'এফ সদস্যদের হাতে তুলে দেন।

বিএস'এফের হাতে আট'ক ওমর' ফারুক নামের ওই পুলিশ সদস্য পঞ্চগড় জে'লা জজ আ'দালতে নিরাপ'ত্তার দ্বায়িত্বে ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সদর থানা পুলিশের ভারপ্রা'প্ত কর্মক'র্তা (ওসি-ত'দন্ত) জামাল হোসেন বি'ষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিএস'এফের হাতে আট'ক হওয়া ওমর' ফারুক জে'লা পুলিশের একজন সদস্য। সন্ধ্যার পর আমর'া তাকে হাতে পেয়েছি। তিনি আ'হত থাকায় এখন তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তিনি কী কারণে ওই সীমা'ন্তে গিয়েছিলেন তা জিজ্ঞাসাবাদসহ ত'দন্ত করা হচ্ছে। চিকিৎসা প্রদানের পর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*