স্বামীর মৃত্যুর ৮ বছর পর স্ত্রীর সন্তান প্রসব

কেশবপুর (যশোর): কেশবপুরের পাঁজিয়া ইউনিয়নের মাদারডাঙ্গা গ্রামে স্বামীর মৃত্যুর আট বছর পর বিধবা স্ত্রীর সন্তান প্রসবের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। স্বামী ছাড়াই সন্তানের মা হওয়া নিয়ে নানা গুঞ্জন চলছে। এলাকাবাসী ওই মা ও নবজাতককে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার পাঁজিয়া ইউনিয়নের মাদারডাঙ্গা গ্রামের পারভীনা বেগমের স্বামী কুবাদ আলী মহলদার আট বছর আগে মারা যান। স্বামীর মৃত্যুর পর স্ত্রী পারভিনা বেগম কোথাও বিয়ে করেননি। দীর্ঘ আট বছর পর এই বিধবা বুধবার একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন। সস্তান প্রসবের পর সন্তানকে বাড়ির পাশের একটি বাঁশ বাগানের মধ্যে ফেলে রাখার চেষ্টাও করেন। বিষয়টি এলাকাবাসী জানতে পারায় তাকে ও নবজাতককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য মা ও নবজাতক শিশুটিকে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। প্রেমের সম্পর্কের কারণেই ওই সন্তানের জন্ম বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, আমি ঘটনাস্থল থেকে মা ও শিশুকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছি।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ জসিম উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে মা ও শিশুটিকে উদ্ধার করে চিকৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*