বর্তমানে বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান খেলা ক্রিকেট। ১৯৭৭ সালে প্রথম বারের মত বিশ্ব ক্রিকেট সংস্থা আইসিসি’র সহযোগী সদস্যপদ লাভ করে। অনেক লম্বা পথ পাড়ি দিয়ে ১৯৯৭ সালে বাংলাদেশ আইসিসি চ্যাম্পিয়নশীপ এ বিজয়ী হবার মধ্য দিয়ে বিশ্ব ক্রিকে’টের বৃহত্তম আসর আইসিসি বিশ্বকাপ ক্রিকেট ১৯৯৯ এ খেলার সুযোগ পায়।প্রথম বারের অংশগ্রহণ বাংলাদেশকে এনে দেয় শক্তিশালী পাকিস্তান এর বিপক্ষে ঐতিহাসিক বিজয়। দিন দিন যেমন উন্নত হতে থাকে বাংলাদেশ দলের খেলার মান। একই সাথে সুযোগ সুবিধা বাড়তে থাকে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদেরও।

পারিশ্রমিক, জীবনযাত্রার মান, খেলার ধরণ ইত্যাদি। বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক ও ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ অনেক। আজ বাংলাদেশ জাতীয় দলের দশ শীর্ষ ধনী ক্রিকেটার সম্পর্কে ও তাদের অর্জিত সম্পদ সম্পর্কে জানা যাক।

১. সাকিব আল হাসান বিশ্বের ধনি ক্রিকেটারের তালিকায় বাংলাদেশি খেলয়ারের নাম পূর্বে কখনো দেখা যায়নি। এই প্রথমবার এমনটাই ঘটল বাস্তবে। সাকিব আল হাসান বিশ্বের সেরা ধনী ক্রিকেটারের শীর্ষে চলে এসেছেন। সাম্প্রতিক এক জরিপে উঠে এসেছে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থ উপার্জনকারী ক্রিকেটার হলেন সাকিব আল হাসান। তার সম্পদের পরিমাণ ৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২৭৫ কোটি)।

2. তালিকার শীর্ষ অবস্থানে আছেন বা হাতি ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। তার ব্যক্তিগত মোট সম্পদের পরিমাণ ২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

৩. বাংলাদেশের অন্যতম উল্লেখযোগ্য উইকেট কিপার ও ব্যস্টম্যান, মুশফিকুর রহিম আছেন তৃতীয় শীর্ষ ধনী বাংলাদেশী ক্রিকেটারের অবস্থানে। তার ব্যক্তিগত মোট সম্পদের পরিমাণ ১.৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার।

৪. মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম আছেন তালিকার চতুর্থ অবস্থানে। এক সময়কার টপ অর্ডার ব্যাস্ট ম্যান মোহাম্মদ আশরাফুলের ক্যরিয়ার ছিল অনেক উজ্জ্বল। যদিও তিনি বর্তমান সময়ে কিছুটা বিতর্কিত। এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের মোট ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ ১.৩ মিলিয়ন ইউএস ডলার।

৫. পঞ্চম অবস্থানটি রয়েছে, বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ক্যাপটেন ও নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা। ম্যাসের মোট ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ ১.২ মিলিয়ন ইউএস ডলার।

পায়ের ইঞ্জুরির কারণে তিনি অনেক সময় অনেক বা’ধার সম্মুখিন হয়েছেন। এমনকি ডাক্তার তাকে খেলতে পর্যন্ত নিষেধ করে দিয়েছেন। কিন্তু কোন বাঁ’ধাই তাকে থামিয়ে রাখতে পারেনি।

৬. ব্যক্তিগত সম্পদ ১ মিলিয়ন ডলার অর্জন করে তালিকার ষষ্ঠ অবস্থান দ’খল করেছেন স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক।

৭. নাসির হোসেন আছেন তালিকার সপ্তম অবস্থানে। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ৮ লাখ ইউএস ডলার।

৮. অষ্টম অবস্থানে আছেন মুমিনুল হক। তার ব্যক্তিগত মোট সম্পদের পরিমাণ ৫ লাখ ইউএস ডলার।

৯. তালিকার নয় নম্বরে আছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ডানহাতি এই অলরাউন্ডারের মোট সম্পদের পরিমাণ ৩ লাখ ইউএস ডলার।

১০. বাংলাদেশের দশম শীর্ষ ধনী ক্রিকেটার হলেন অলোক কাপালি। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ২ লাখ ইউএস ডলার। ডানহাতি এই ব্যাটস ম্যানের অনেক অবদান ২০১৫ বিপিএল এ কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্সকে চ্যাম্পিয়ন করার পিছনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here