‘বলিউডে যদি নারকোটিক্স ব্যুরো ত’দন্ত করে তাহলে বহু অভিনেতাই জে’লে যাবেন। কারণ তাদের অনেকেই মা’দকাসক্ত’ এমনটাই দাবি করলেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। আর মুহুর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় তার এই মন্তব্য।

সোশ্যাল মিডিয়ায় দেয়া এক পোস্টে কঙ্গনা লিখেছেন, ‘নারকোটিক্স ব্যুরো কন্ট্রোল যদি বলিউডে ঢোকে, তাহলে প্রথম সারির সব তারকারা জে’লের ভিতর থাকবেন। সবার র’ক্ত পরীক্ষা করা গেলেই এই ত’থ্য বেরিয়ে আসবে। আশা করছি স্বচ্ছ ভারত মিশনে প্রধানমন্ত্রী বলিউডের এই আবর্জনাও দূর করবেন।’

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যুর’হস্য ত’দন্ত করতে গিয়ে এতে মা’দকের স’ঙ্গে সংযোগ পাওয়া যায়। আর এর পর থেকেই মা’দক নিয়ে নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে। জানা গিয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রে’মিকা রিয়া চ’ক্রবর্তী ড্রাগ ব্যবসার স’ঙ্গে জড়িত ছিলেন। এমনকি তিনি নিজেও ড্রাগ নিতেন। আর তাই নারকোটিক্স ব্যুরো কন্ট্রোল ফৌজদারি মা’মলা করেছে রিয়ার বি’রুদ্ধে। আর তারপরই কঙ্গনা এই মন্তব্য করেছেন।

বিজ্ঞাপন
প্রস’ঙ্গত, ইডি অফিসের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, রিয়া চ’ক্রবর্তীর স’ঙ্গে নি’ষিদ্ধ মা’দক চ’ক্রের যে যোগাযোগ রয়েছে, তার ত’থ্য প্রমাণ তাদের হাতে এসেছে। শুধু তাই নয়, রিয়ার স’ঙ্গে মা’দক চ’ক্রের যোগাযোগ নিয়ে যে ত’থ্য প্রমাণ হাতে এসেছে, তা ‘সিবিআই’ এবং নারকোটিক্স ব্যুরো কন্ট্রোলকে জানানো হয়েছে বলে দাবী করা হয় ইডি অফিসের পক্ষ থেকে।

নি’ষিদ্ধ মা’দক চ’ক্রের স’ঙ্গে যোগাযোগ বি’ষয়ে ভারতীয় আরেকটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয় রিয়া চ’ক্রবর্তীর হোয়াটস অ্যাপের কথপোকথন। যেখানে জয়া নামের এক ম’হিলার স’ঙ্গে মা’দক সংক্রান্ত বি’ষয়ে রিয়ার কথপোকথন প্রকাশ করা হয়। এতে দেখা যায়, জয়া হোয়াটসঅ্যাপে রিয়াকে লিখেছেন, ‘চার ফোঁটা পানিতে বা চায়ের সাথে মিশিয়ে দাও… ৩০-৪০ মিনিটের মধ্যেই ও মাতাল হয়ে যাবে।’ এর উত্তরে রিয়া লেখেন, ‘ধ’ন্যবাদ’। জয়ার উত্তর আসে, ‘আশা করি এটা কাজ দেবে’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here