জুমবাংলা ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স’রকার যেকোনো অনিয়ম ও দু’র্নীতির বি’রুদ্ধে ক’ঠোর অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বৃহস্পতিবার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি আয়োজিত প্রতিনিধিদের মাধ্যমে ক’রোনা প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে তার বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগর ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কমিটির পক্ষ্য থেকে ক’রোনাভা’ইরাসেে আ’ক্রান্ত রেড জোনভুক্ত জে’লা এবং বন্যায় ক্ষ’তিগ্রস্ত জে’লাসমুহের বিভিন্ন হাসপাতালে উন্নতমানের এই ভাই’রাস প্রতিরোধ সামগ্রী প্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা জানেন, যে কোনো অনিয়ম দু’র্নীতির বি’রুদ্ধে স’রকারের অবস্থান ক’ঠোর। সততা ও নিষ্ঠার প্রতীক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নেয়া শুদ্ধি অ’ভিযান অব্যাহত রয়েছে। তিনি নিজ থেকেই ক্যা’সিনো বি’রোধী অ’ভিযান শুরু করেছিলেন।

তিনি বলেন, যার ধারাবাহিকতায় চিকিৎসাব্যবস্থা নিয়ে যারা বা যে অশুভ চ’ক্র প্র’তারণা করছেন তাদের বি’রুদ্ধে অ’ভিযান চলছে। এ সকল অনিয়ম বাহির থেকে কেউ ধরিয়ে দেয়নি। স’রকার নিজ উদ্যোগে শুরু করেছে অনিয়ম রুখতে ক’ঠোর অ’ভিযান।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, চিকিৎসা ব্যবস্থা বিশেষ করে হাসপাতাল, নমুনা পরীক্ষার ভূয়া সনদ, প্লাজমা ডোনেশন, সুরক্ষা সামগ্রী ক্রয়, হাসপাতালের যন্ত্রপাতি সংগ্রহসহ অন্যান্য খাতের সাথে স্বাস্থ্যখাতের নানান অনিয়মের বি’রুদ্ধে শেখ হাসিনা স’রকারের শুদ্ধি অ’ভিযান শুরু হয়েছে, অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, অ’পরাধীর কোনো দলীয় পরিচয় নেই। যত ক্ষ’মতাধর হোক তাকে আইনের আওতায় আসতে হবে। যারা জনগণের অ’সহায়ত্ব নিয়ে অ’বৈধ ব্যবসা করছে, প্র’তারণা করছে, শেখ হাসিনা স’রকার তাদের বি’রুদ্ধে শূন্য সহিষ্ণতার নীতিতে অটল।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ক’রোনা স’ঙ্কটের শুরু থেকে স’রকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ অ’সহায়, কর্মহীন মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। স্থাপন করেছে মানবিকতার অনন্য দৃষ্ঠান্ত মাটি ও মানুষের দল হিসেবে দেশের যেকোনো দু’র্যোগে সবার আগে ছুটে যায় আওয়ামী লীগ। অ’সহায় মানুষের পাশে থাকা আওয়ামী লীগের সাত দশকের ঐতিহ্য।

তিনি বলেন, এরই মাঝে দেশব্যাপী প্রায় সোয়া এক কোটি পরিবারের মাঝে দলীয়ভাবে খাদ্য সাহায়তা দেয়া হয়েছে। সাড়ে দশকোটি টাকার বেশি নগদ সহায়তা দেয়া হয়েছে। খাদ্য ও নগদ সহায়তা ছাড়াও অন্যান্য সহায়তা বিশেষ করে স্বাস্থ্য সেবায় সুরক্ষা সামগ্রী, টেলিমেডিসিন, অ্যাম্বুলেন্সসহ নানাবিধ উপায়ে মানুষের সাথে আছে আওয়ামী লীগ।

তিনি বলেন, কৃষকের ধান কে’টে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এখন বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে আছে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা। আমি দুর্গত এলাকার মানুষকে সহায়তার জন্য আবারও দলীয় নেতাকর্মীদের আহ্বান জানাচ্ছি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ক’রোনা স’ঙ্কটে জনসচেতনতা তৈরির পাশাপাশি সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণের জন্য ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ কমিটিকে আমি ধ’ন্যবাদ জানাচ্ছি বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণের ধারাবাহিকতায় আজ অক্সিজেন জেনারেটরসহ বিভিন্ন সামগ্রী প্রদাণ করা হচ্ছে সংক্রমিত জে’লা সমূহের হাসপাতাল ও বন্যা কবলিত জে’লাগুলোর সদর হাসপাতালে।

সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, ক’রোনা স’ঙ্কটের পাশাপাশি বন্যাদুর্গত অ’সহায় মানুষের সুরক্ষা স’রকারের জন্য নূতন আরেকটি চ্যালেঞ্জ। আপনারা জানেন, ফি বছর নানান ধরণের প্রাকৃতিক দূর্যোগ মো’কাবিলায় বাংলাদেশের সক্ষ’মতা বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত। আমাদের আছে স’ঙ্কটের সাহসী ও মানবিক নেতৃত্তের শেখ হাসিনা দু’র্যোগকালে মানবিকতার আধার ও আস্থার ঠিকানা।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সব সময় অ’সহায় মানুষের পাশে আছেন। বন্যা দুর্গত এলাকায় মানুষের সুরক্ষা মানবিক সহায়তা প্রদানে ইতিমধ্যে তিনি দিয়েছেন প্রয়োজনীয় নির্দেশনা। এর পাশাপাশি বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর পরই শুরু হবে পুনর্বাসন কার্যক্রম। গ্রামীণ অবকাঠামো, কৃষি ক্ষেত্রে বিভিন্ন সহায়তাসহ ক্ষ’তি পুষিয়ে নিতে নেয়া হচ্ছে গুচ্ছ পরিকল্পনা। আপনারা মনোবল হারাবেন না, মনে সাহস রাখু’ন।

এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন ও সাখাওয়াত হোসেন শফিক, ত্রান ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, মুক্তিযু’দ্ধ বি’ষয়ক সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাস, স্বাস্থ্য বি’ষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শাহাবুদ্দিন ফরাজি ও আনিসুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here