ভা’রত-চীন সীমান্তবর্তী এলাকা নিয়ে আবারও মুখোমুখি হচ্ছে। ডোকলাম ও সিকিমের স্প’র্শকাতর সীমান্ত এলাকায় দুটি নতুন ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটি তৈরি করছে চীন। সম্প্রতি উপগ্রহ চিত্রে এটি ধ’রা পড়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, নতুন ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটিগুলো থেকে নিশানা ভেদ করতে আরও বেশি সফল হবে চীনা সে’নারা।

টুইটারে ‘@detresfa’ নামধারী ত’থ্য বিশ্লেষকের শেয়ার করা ছবিতে বুঝা যাচ্ছে যে, সীমান্ত অঞ্চলে দু’টি ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটি গড়ছে চীনের পিপলস লিবারেশন আ’র্মি। সিকিমের খুব কাছাকাছি দু’টি স্থানই ভা’রতীয় সে’নার রাডারে ‘স’ন্দে’হ’জনক’ এলাকার তালিকাভুক্ত।

বিশেষজ্ঞদের মতে, নতুন ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটিগুলো থেকে নিশানা ভেদ করতে আরও বেশি সফল হবে চীনা সে’নারা। দু’টি ঘাঁটিই ডোকা-লা গিরিপথ থেকে প্রায় ৫০ কিমি আওতার মধ্যে এবং ডোকলাম মালভূমির কাছে। যেখানে ২০১৭ সালে ভা’রত-চীনা সে’নার মধ্যে ৭৩ দিনব্যাপী সাম’রিক দ্ব’ন্দ্ব ঘটেছিল এবং গত ৯ মে দুই দেশের সে’নার মধ্যে মুখোমুখি সং’ঘর্ষ হয়।

টুইটারে ‘@detresfa’ জানিয়েছে, উল্লিখিত দুই অঞ্চলে ভা’রতীয় সে’নাবাহিনী নিয়মিত নজরদারি অ’ভিযান চা’লায়। এই কাজে ব্যবহার করা হয় পি-৮ পোসাইডন নজরদারি প্লেন।

উপগ্রহ চিত্রে স্পষ্ট যে, ভা’রত-ভুটান ও চীনের ত্রিদেশীয় সী’মান্তের সংযোগস্থলের কাছেই একটি ক্ষে’পণাস্ত্র ঘাঁটি গড়ছে পিএলএ। অন্যটি তৈরি হচ্ছে সিকিমের বিপরীতে চীনা ভূখণ্ডে। এখনো পর্যন্ত চীনের এ উদ্যোগ স’ম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেনি ভা’রত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here