পাঁচ মাস ধরে তিন খালাতো ভাই মিলে ধ’র্ষণ করছিল ১২ বছরের এক কি’শোরীকে। পরে ওই কি’শোরী অ’ন্তঃসত্ত্বা হয়ে গেলে তিনজনই পা’লিয়ে যায়। ভারতের গুজরাটের নওসারী জে’লায় এ ঘ’টনা ঘটেছে।
সম্প্রতি কি’শোরী চার মাসের অ’ন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে সম্প্রতি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তখনই এই ধ’র্ষণের ঘ’টনা সামনে আসে।

জানা গেছে, কি’শোরীর বাবা দিনমজুর। পাঁচ মাস আগে কাজিনদের একজন প্রথম ওই নাবালিকাকে ধ’র্ষণ করে। এরপর সে আরো দুই ভাইকে ঘ’টনার কথা জানালে, তারাও ভ’য় দেখিয়ে ধ’র্ষণ করে।

কি’শোরী যেন মুখ বন্ধ রাখে সেজন্য হু’মকিও দেয় অ’ভিযুক্তরা। এরপর গত পাঁচ মাস ধরে নানা সময়ে একাধিকবার ওই কি’শোরীকে ধ’র্ষণ করা হয়েছে। বাড়িতে অভিভাবকরা কেউ না থাকলে, সেই সুযোগে যৌ’ন নিগ্রহ করত কাজিনরা।

পু’লিশ জানিয়েছে, অ’ভিযুক্তদের সবার ব’য়স ১৮ বছরের নীচে। দিন কয়েক আগে মে’য়েটির পেটে ব্য’থা শুরু হলে, মা তাকে নিয়ে হাসপাতালে যান।

পরীক্ষা করার পর চিকিৎসকরা জানান, কি’শোরী চার মাসের অ’ন্তঃসত্ত্বা। চিকিত্‍সার জন্য বুধবার রাতে অ’ন্তঃসত্ত্বা নাবালিকাকে অন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়। বৃহস্পতিবার হাসপাতালে গিয়ে নি’র্যাতিতার বয়ান নিয়েছে পু’লিশ। মে’য়েটির মা-বাবার স’ঙ্গে কথা বলেছে।

পু’লিশ আরো জানায়, কি’শোরীর সম্প’র্কিত ভাই তিন অ’ভিযুক্তের বি’রুদ্ধে ধ’র্ষণের মা’মলা করা হয়েছে। ঘ’টনা জানাজানি হওয়ার পর থেকে তারা গা ঢাকা দিয়ে আছে। খুব শিগগিরই তাদের গ্রে’প্তার করা হবে। অ’ভিযুক্তরা নাবালক হওয়ায় পকসো আইনে অ’ভিযোগ দা’য়ের হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here